বাগদাদবিনাশী হালাকু খান

220px-Hulagu_Khanহালাকু খান সত্যিই বিতর্কিত এক নাম, ইতিহাসের চিরবিস্মৃত এক অধ্যায়। ইসমাইলিয়া শিয়াদের নেতা হাসান সাব্বার বিখ্যাত আলামুত দুর্গপতন থেকে শুরু করে খলিফাদের সঙ্গে লড়াই তাকে বিখ্যাত করেছে। ১২৫৮ সালে বাগদাদ অবরোধের পর তিনি যেভাবে রক্তের হোলি খেলা শুরু করেছিলেম। তার নির্মম হত্যাকাণ্ডে একটি নিরীহ শিশু, গর্ভবতী নারী কিংবা মৃত্যুপথযাত্রী বৃদ্ধও রক্ষা পায়নি। পক্ষান্তরে পাশবিক উন্মত্ততায় মোঙ্গল বাহিনী তছনছ করে দেয় বাগদাদের বিখ্যাত নিজামিয়া লাইব্রেরী।

১২৬০ সালে আইয়্যুবীয় খলিফা আন-নাসির ইউসুফকে হত্যার মধ্য দিয়ে মোঙ্গল উন্মাদনা আরেকদফা বৃদ্ধি পায়। তবে এর মধ্য দিয়ে মুসলিম বিশ্বের ক্ষমতায় যে মেরুকরণ ঘটে তা ধীরে ধীরে লাইম লাইটে নিয়ে আসে মামলুকদের। তবে তাতেও সন্তুষ্ট না হওয়া হালাকুকে পেয়ে বসেছিলো পুরো মুসলিম বিশ্ব দখলে নেয়ার খায়েশ। এদিকে তার বিখ্যাত জেনারেল অজেয় নেস্তোরিক খ্রিস্টান যোদ্ধা নাইমান কিতবুকার অধীনে মাত্র হাজার বিশেক সৈন্য রেখে সে অগ্রবর্তী হয় নতুন যুদ্ধে। ১২৬০ সালে জেরুজালেম অভিমুখে যাত্রা করায় তার হাতে চরম ক্ষতির সম্মুখীন হয় সিরিয়া।

প্রথম হেতুমের সিলিসিয়া রাজ্যের ধ্বংস তাকে অপ্রতিরোধ্য করে তুলেছিলো। এরপর একরের ক্রুসেডার রাজ্যের সঙ্গে ফ্রাঙ্কোমোঙ্গল মৈত্রী জোট গড়ে তোলার চেষ্টা চালান হালাকু। তবে Continue reading বাগদাদবিনাশী হালাকু খান

বাংলার ঐতিহ্যবাহী মৃৎশিল্প

28socials3bigমানব সংস্কৃতির ঐতিহাসিক আবর্তন যেসব প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শনের ওপর নির্ভর করে বিশ্লেষণ করতে হয় তার মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ মৃৎপাত্র। একজন প্রত্নতাত্ত্বিক গবেষক হিসেবে এই মৃৎপাত্রের ভাঙ্গাচোরা টুকরাগুলোকে অনেক বিরক্তির, যন্ত্রণাদায়ক ও কষ্টকর গবেষণা উপকরণ হিসেবেই মনে হয়েছে। কোনো প্রত্নস্থান থেকে নানা উপায়ে যে প্রত্ন উপকরণ সবচেয়ে বেশি চোখে পড়ে তা হচ্ছে পর্ট সার্ড তথা এই খোলামকুচিই। প্রত্নতত্ত্ব বিভাগে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী হিসেবে যখন বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ প্রত্নস্থান উয়ারী-বটেশ্বরের খনন কাজে অংশ নিয়েছিলাম তখন থেকেই পরিচয় নানা ধরনের মৃৎপাত্রের টুকরা আর গাঠনিক বৈশিষ্ট্যের সাথে।
উয়ারী-বটেশ্বর থেকে প্রাপ্ত মৃৎপাত্রগুলোর মধ্যে সবার আগে বলা যেতে পারে কালো-ও-লাল মৃৎপাত্র, উত্তরাঞ্চলীয় কালো চকচকে মৃৎপাত্র কিংবা কালো প্রলেপযুক্ত মৃৎপাত্রের কথা। প্রাথমিকভাবে ধরে নেয়া যায় এই বিশেষ মৃৎপাত্রের মধ্যে কালো-ও-লাল মৃৎপাত্র প্রাপ্তি বাংলার ইতিহাসকে নতুন করে লিখতে বাধ্য করেছে। বিশ্বের কোনো স্থানে একই সাথে Continue reading বাংলার ঐতিহ্যবাহী মৃৎশিল্প

দোলাই নদীর গল্প

7853dc2ec15540169bde5d522c9ffb53রাজধানী ঢাকায় দোলাই নামে একটি নদী ছিল। যদিও নাগরিক ভাষ্যে এটি একদা খাল হিসেবে পরিচিতি পেয়েছিল এবং হাল-আমলে দোলাই নদী ভরাট করে গড়ে তোলা হয়েছে রাজপথ। পুরান ঢাকায় এখনও ধোলাইখাল নামে একটি এলাকা আছে, যে এলাকাটি মোটরপার্টসের দোকানের জন্য বিখ্যাত। আছে লোহারপুল ও কাঠেরপুল। পুল দুটি ছিল দোলাইয়ের ওপর। ধোলাইখাল, লোহারপুল, কাঠেরপুল, দোলাইরপাড় ইত্যাদি নাম মনে করিয়ে দেয় মৃত এক নদীর স্মৃতি। অথচ মোগল আমলের শুরুতেও দোলাই ঢাকার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নদীপথ ছিল বলে জানিয়েছেন সুলতানি ও মোগল আমল নিয়ে গবেষণার জন্য বিখ্যাত ঐতিহাসিক Continue reading দোলাই নদীর গল্প

শর্টকার্ট ভাইরাসের যন্ত্রণা এড়াতে

shortcut-virus-vtশর্টকাট ভাইরাস স্থায়ীভাবে রিমুভের জন্য আপনাকে কয়েকটি ধাপ অনুসরণ করতে হবে। এগুলো সঠিক এবং ধারাবাহিকভাবে করা গেলে সহজেই মুক্তি মিলতে পারে শটকার্ট ভাইরাসের জ্বালাতন থেকে। নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করে চেষ্টা নিন একটু…… দেখা যাক কাজ হয় কিনা ?

প্রথমে যদি কম্পুটারে শর্টকার্ট ভাইরাস না থাকে সেক্ষেত্রে নিরাপত্তা ঝালিয়ে নিন এভাবে… Continue reading শর্টকার্ট ভাইরাসের যন্ত্রণা এড়াতে

সেন্ট নিকোলাস টলেন্টিনোর গির্জা

aaঢাকার অদূরে অবস্থিত গাজীপুরের গুরুত্ব স্যাটেলাইট টাউন হিসেবে সর্বাধিক। বিশেষ করে সময়ের আবর্তে বাংলাদেশের উচ্চশিক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এখানে অবস্থিত। পাশাপাশি উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ এবং আইআইটির অবস্থান একে দিয়েছে শিক্ষানগরীর সম্মান। তবে হাজার বছরের প্রাচীন নগরী ঢাকার উপকণ্ঠে অবস্থিত এ নগরীর প্রত্ন-ঐতিহ্যকে ছোট করে দেখার অবকাশ নেই। অন্তত জয়দেবপুরের ভাওয়াল রাজবাড়ী ও ভাওয়াল রাজ শ্মশানেশ্বরী, শ্রীপুরের ইন্দ্রাকপুর, কাপাসিয়ার টোক বাদশাহী মসজিদ, পূবাইল জমিদার বাড়ি, কালিয়াকৈরের বলিয়াদি জমিদার বাড়ি, একডালা দুর্গ, টঙ্গীর মীর জুমলা সেতুর পাশাপাশি বাংলাদেশের প্রথম খ্রিস্ট ধর্মীয় উপাসনা স্থান সেন্ট নিকোলাস টলেন্টিনো চার্চের উপস্থিতি একে দিয়েছে ভিন্ন মাত্রা। অন্যদিকে বাংলা সাহিত্যের কালজয়ী কথাশিল্পী হুমায়ূন আহমেদের স্বপ্নঘেরা নুহাশ পল্লী, চান্দনার নাগবাড়ী, আনসার একাডেমি, ভাওয়াল জাতীয় উদ্যান আর বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক এ শহরকে করেছে পর্যটন বিকাশের এক অপার সুযোগ। Continue reading সেন্ট নিকোলাস টলেন্টিনোর গির্জা

দ্রোহ ও বিপ্লবের সাংবাদিক

show_image_sppgnewspro-phpঅনেক ক্ষোভ নিয়ে এক বর্ষীয়ানকে বলতে শুনেছিলাম, স্কুলের বাচ্চাদের মতো সাংবাদিকদেরও পোশাক থাকা দরকার। ভদ্রলোক মনে করেন, বাংলাদেশের অমর কথাশিল্পী হুমায়ূন আহমেদ সৃষ্ট চরিত্র হিমুর মতো এ পোশাকের রঙও হবে হলুদ। সেখানে আলখেল্লা, পাঞ্জাবি কিংবা টি-শার্ট কী হবে, তা নিয়ে মাথাব্যথা নেই ওনার। কার সঙ্গে তর্ক হচ্ছে ভাবনা থেকে ঝেড়ে ফেলে তিনি পই পই করে বললেন, ‘মিডিয়া ইজন্ট আ প্লেস ফর দ্য রিফ্লেকশন অব রিয়েলিটি’। ব্যক্তি-গোষ্ঠী, রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও দলীয় স্বার্থ চরিতার্থ করতে গিয়ে এ সময়ে গণমাধ্যমগুলোর যে দুর্দশা, সেখানে এমন হটকারী মন্তব্যের জবাব দেয়াটাও হয়ে যায় বেশ কঠিন। তবে গৌরবময় পেশা হিসেবে সাংবাদিকতার অতীত এখনো সমুজ্জ্বল, উন্নত ও গৌরবে চিরভাস্বর। অনেক আনন্দের সঙ্গে আমরা স্মরণ করতে পারি জাতীয় কবি, তারুণ্য, দ্রোহ, প্রেম ও বিপ্লবের কবি কাজী নজরুল ইসলামও একটা সময় ছিলেন সাংবাদিক। আর স্বভাবসিদ্ধ দ্রোহের তাড়নায় লিখেছিলেন একটি আগুনঝরা সম্পাদকীয়, পত্রিকা বন্ধের পাশাপাশি জামানত পর্যন্ত বাজেয়াপ্ত হয় ‘নবযুগ’ শীর্ষক সংবাদপত্রটির। Continue reading দ্রোহ ও বিপ্লবের সাংবাদিক

কতটা সময় ইতিহাসে হাজার বছর হয়?

suvo noboborsho_26241শ্রদ্ধেয় গোলাম মুরশিদ স্যার একখান কেতাব লিখেছেন। হাজার বছরের বাঙালি সংস্কৃতি। আশার ছলনে ভুলি শীর্ষক মাইকেল মধুসূদন দত্তের জীবনীগ্রন্থ পাঠ করার পর স্যারকে আমার ক্ষুদ্র চিন্তাজগতের অনেক উপরে স্থান দিয়েছিলাম। তবে এই হাজার বছরের বাঙালি সংস্কৃতি বইটি পড়ার পর চিন্তা হয়েছে Continue reading কতটা সময় ইতিহাসে হাজার বছর হয়?

বিভাগের বোকাঘুড়ি শিক্ষার শূন্য সুতোর নাটাই

floating-schoolপ্রতিষ্ঠার পর থেকে বাংলাদেশে উচ্চশিক্ষা বিস্তারে বিশেষ ভূমিকা রাখছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। বিশেষ করে গুণগত দিক থেকে অনেক প্রশ্ন উঠলেও সংখ্যার দিক থেকে বাংলাদেশ তো বটেই, বিশ্বের অনেক দেশের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলো থেকে এটি এগিয়ে থাকবে নিঃসন্দেহে। পুরো দেশের প্রায় সব কলেজ, যেগুলো উচ্চশিক্ষার সঙ্গে জড়িত, সেগুলোকে একই ছাতার নিচে এনে পরিচালনা চাট্টিখানি কথা নয়। ফলে আকৃতি ও কলেবরের এ বিশালতা একই সঙ্গে একে যেমন করেছে বৈচিত্র্যময়, তেমনি নানা সমস্যায় জর্জরিত দেশের উচ্চশিক্ষা। বিশেষ করে প্রত্যন্ত অঞ্চলগুলোয় অবস্থিত ক্যাম্পাসে যোগ্যতম শিক্ষকদের যুক্ত হতে এক ধরনের অনীহা লক্ষ করা গেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের রীতি মেনে অনেক অনুষদের পাঠদান চলছে। তার জন্য শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের বরাদ্দকৃত কক্ষগুলোর বৈদ্যুতিক পাখা ঘুরছে। সকাল থেকে বিকাল অবধি বেশ জনসমাগমও হচ্ছে ঠিকই। তবে পাঠদান ও পাঠগ্রহণের মানদণ্ডে সেটি কত দূর এগিয়ে যেতে পেরেছে, তা নিয়ে উত্কণ্ঠা দেদার। Continue reading বিভাগের বোকাঘুড়ি শিক্ষার শূন্য সুতোর নাটাই

‘ইলেভেন মিনিটস’

images

যে যাই মনে করুক আমি শুরুতেই বলব। ব্যর্থ প্রেম-ভ্রষ্টাচারে বিষাক্ত এক জীবনের গল্প ‘ইলেভেন মিনিটস’। শুরুটা স্কুল থেকে। নির্জন রাস্তায় মারিয়ার স্কুল যাওয়া; সেই ছেলেটি। নীরবে এক পাশ দিয়ে হেঁটে যেতে একদিন তার এগিয়ে আসা, একটা পেন্সিল চাওয়ার অজুহাতে মারিয়াকে কিছু বলার চেষ্টা; তার পর ব্যর্থতায় তার বদলে যাওয়া। আর দশটা স্বাভাবিক মেয়ের মতো বয়ঃসন্ধিকালের অনুসন্ধিত্সু সময় পার করতে গিয়ে মনোদৈহিক বদলের মুখে মারিয়া কী করেছে, সেখান থেকেই বর্ণনার শুরু। নানা কষাঘাতে বারবার বদলে গেছে তার জীবনের গতিপথ। এর পর হঠাত্ রিও ডি জেনিরো গমন; সেখানে একই সাথে নিরাপত্তারক্ষী-দোভাষী-সুইস এজেন্টের দালাল ম্যালিসনের সাথে পরিচয়। একজন মডেল হওয়ার তীব্র বাসনা আর ঝলমলে পর্দার হাতছানি তাকে সাহস দেয়। বাড়িতে ফিরে মা-বাবার অনুমতি নিয়ে সে পাড়ি দেয় সুইজারল্যান্ডের জেনেভা। এমন একটা দেশ যেখানে তার পরিচিত কেউ নেই, নেই স্বজন এমনকি তার ভাষা বোঝে, এমন মানুষ মেলা ভার। Continue reading ‘ইলেভেন মিনিটস’

সেদিন কোনও একদিন…

wallpaper-love-love-31307651-1280-960তারা কথা রাখেনা। কেউ কেউ হয়ত রাখে। নিজের সম্পূর্ণ বিশ্বাস তাদের কারো হাতে তুলে দেয়ার আবেগটা জন্মায় নি আমার মাঝে। ইচ্ছে করে তাই আমার এক একটি নির্ঘুম রাতের দায় সব নষ্ট ভালোবাসার শিকলমুক্ত রেখেছি। বিমুগ্ধতার পরশ বুলিয়ে যাওয়া নিশ্চুপ অন্ধকার কিংবা কৃষ্ণপক্ষের ঘোলাটে চাঁদের পূর্ণ অধিকারটাও তেমনি Continue reading সেদিন কোনও একদিন…

ইতিহাস, ঐতিহ্য, প্রত্নতত্ত্ব আর রাজনীতি

Follow

Get every new post delivered to your Inbox.

Join 738 other followers