হুমায়ুন আহমেদ, ঘেটুপুত্র কমলা আর কিছু অজানা আশংকা পর্ব ০২


আমি হুমায়ুন আহমেদের মতো একজন নন্দিত কথাসাহিত্যিকের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে কিছু বলার সাহস দেখাবো না। কারণ এটি পাঠকরা এবং আমি নিজেও কমবেশি জানি। প্রতিক্রিয়া, অভিরুচি ও মতামত প্রত্যেকের যার যার মতো রয়েছে। শুধু উনি আর তাঁর বিজ্ঞ কলকৌশলীদের স্মরণ করিয়ে দিতে চাই। মানুষ অনুকরণ প্রিয় তাদেরকে অনুকরণ করার মতো একটি অস্বাভাবিক বিষয়ের সম্মুখীন না করলেই কি নয় ? আপনি তো এর আগেও অনেক মুভি বানিয়েছেন, সেগুলো কিন্তু জনপ্রিয়তার দিক থেকে খুব একটা্ খারাপ ছিল না। আজ আপনি এমন একটি স্থানে চলে গেছেন যেখানে আপনার নামই একটি ব্রাণ্ড। এই ধরণের একটি মুভি আজকের দিনে তৈরী না করলেই কি নয়।
স্মরণ করিয়ে দিতে চাই ২০০২ সালের দিকে কুখ্যাত সিরিয়াল কিলার ‘টেড বান্ডি’ এর জীবনের উপর নির্মিত হলিউডি মুভি ‘টেড বান্ডি’ মুক্তি পায়। এখানে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেন মিচেল রেইলি বার্কে এবং তার হতভাগ্য বান্ধবীর চরিত্রে অভিনয় করেন বটি ব্লিস। মুভিটির কাহিনীতে দেখানো হয় টেড বান্ডি একজন খুবই স্মার্ট, হ্যাণ্ডসাম ও সুদর্শন যুবক। এই সুবিধাকে কাজে লাগিয়ে সে ওয়াশিংটন, কলোরাডো, উতাহ,মিশিগান, ফ্লোরিডা সহ নানা স্থানের তরুনীদের বোকা বানিয়ে প্রায় একশ হত্যা করে। পরে টেড বাণ্ডি এই সকল হত্যাকাণ্ডের কথা অকপটে স্বীকার করে নেয়। ২০০২ সালে মুভিটি মু্ক্তি পাওয়ার পর আমেরিকা সহ পৃথিবীর নানা স্থানে প্রেমে প্রত্যাখ্যাত বা ধোঁকাপ্রাপ্ত যুবকদের মাঝে বান্ধবীদের হত্যা ও নির্যাতন করার প্রবণতা বেড়ে যায়। আরে একটি উজ্জল উদাহরণ দিতে পারি রাকেশ রোশনের বিখ্যাত ক্রিশ মুভিটি মুক্তির পর বাজারে শিশুদের জন্য এই একই ধরণের ক্রিশ মুখোশ পাওয়া যেতো। ক্রিশের অলৌকিক শক্তির ধেকে অনুপ্রাণিত হয়ে অনেক শিশু ছাদ থেকে বা উচু স্থান থেকে ঐ ক্রিশ মুখোশপরে লাফ দেয়। তিনজন শিশুর মৃত্যুর খবর পত্রিকার পাতায় আমি নিজেই দেখেছি।
সম্প্রতি সালমান খান অভিনীত বডিগার্ড মুভিতে ব্যবহৃত বিশেষ হেডফোনটিও বাজারে আসতে দেখা গেছে। আমি একদিন মারাত্বক ধোকা খাই নিউমার্কেটে। দেখি ফুটপাতে হেডফোন ব্রিক্রি হচ্ছে। অবাক হয়ে ভাবলাম ব্লু-টুথ হেডসেট হয়তো। কিন্তু কাছে এগিয়ে গিয়ে দেখি এটি আর কিছু না বডিগার্ড হেডফোন। যেটি ক্রমে হয়ে ওঠে বস্তির বালকদের আর শিশুদের অন্যতম স্টাইল। বিটিভিতে প্রচারিত আলিফ লায়লার বিশেষ বিচ্ছু আকরামের মতো প্লাস্টিকের বিচ্ছু বাজারে বের হতে দেখা গেছে। আর ঈদের মার্কেটে ফানা, বীরজারা, মাহিয়া, সাভারিয়া সহ বিভিন্ন মুভির নামে পোশাক বিক্রির ঘটনা নতুন কিছু নয়। এমনকি মেয়েদের উপরে এসিড নিক্ষেপের মতো ন্যক্কারজনক ঘটনাও প্রচলিত হয়েছে হলিউডি মুভি থেকে।

হুমায়ুন আহমেদ, ঘেটুপুত্র কমলা আর কিছু অজানা আশংকা পর্ব ০৩

হুমায়ুন আহমেদ, ঘেটুপুত্র কমলা আর কিছু অজানা আশংকা পর্ব ০১

Advertisements

One thought on “হুমায়ুন আহমেদ, ঘেটুপুত্র কমলা আর কিছু অজানা আশংকা পর্ব ০২”

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s