হুমায়ুন আহমেদের কর্মময় জীবন কিছু বিতর্ক, কিছু প্রাপ্তি (ফেসবুক আলোচনা কপি পেস্ট)

বরেণ্য কথা সাহিত্যিক হুমাযূন আহমেদের মৃত্যুর দিন রাতেই তৌসিফ সালাম ভাইকে একটি স্ট্যাটাস দিতে দেখি। উনি ওখানে বলেছিলেন “অভিনেত্রী শাওন”।

ছোট্ট মাত্র দুই ওয়ার্ডের স্ট্যাটাসের ডিসকাশনে পরিষ্কার হয়েছিল মূল কাহিনী। পরে আজ শুভ ভাই একটি স্ট্যাটাস দিলে সেখানে চমৎকার কিছু ডিসকাশন দেখা যায়। ফেসবুকের এই ডিসকাশন গুলো হারিয়ে যায় দ্রুতই তাই ভাবছি এটা সংরক্ষণ করা জরুরী। ফেসবুকে যেভাবে মন্তব্য করা হয়েছে সেভাবেই সরাসরি কপি পেস্ট করে সংরক্ষণ করছি। এছাড়া এটা সবাই দেখতে পারবেন।  ধন্যবাদ। Continue reading হুমায়ুন আহমেদের কর্মময় জীবন কিছু বিতর্ক, কিছু প্রাপ্তি (ফেসবুক আলোচনা কপি পেস্ট)

সৈয়দ ইসমাইল হোসেন শিরাজী জীবন ও কর্ম

উনিশ শতকের শেষভাগে বাঙালি মুসলমান সমাজে নবজাগরণের যে প্রচেষ্টা শুরু হয়েছিল তাতে সমকালীন বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার মানুষ যুক্ত হয়েছিলেন। কোনো সন্দেহ নেই যে সমকালীন আর্থসামাজিক-রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে এ নবজাগরণের প্রয়োজন ছিল অপরিহার্য। এটাও অনস্বীকার্য যে, এ প্রচেষ্টায় সুফল ফলেছিল এবং বাঙালি মুসলমানের সার্বিক অবস্থার উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন সাধিত হয়েছিল। এ প্রসঙ্গে আমরা ১৮৫৭ সালের ‘সিপাহি বিপ্লব’ বা উপমহাদেশের প্রথম স্বাধীনতার যুদ্ধের কথা স্মরণ করতে পারি।
এটা ঠিক যে, এতে মুসলমানদের ভূমিকা ছিল প্রধান ও অংশগ্রহণ ছিল ব্যাপক, কারণ তারাই ছিলেন শাসক জাতি এবং ক্ষমতা হারানোর জন্য তাদের ভেতরে বিরাজ করছিল প্রচণ্ড ক্ষোভ। এর বহিঃপ্রকাশ এর আগে নানাভাবে ঘটেছে। কিন্তু এ বিদ্রোহের বারুদে যিনি সর্বপ্রথম অগ্নিসংযোগ করেছিলেন, তিনি ছিলেন ব্রিটিশ সেনাবাহিনীর ভারতীয় হিন্দু সিপাহি—মঙ্গল পাণ্ডে। Continue reading সৈয়দ ইসমাইল হোসেন শিরাজী জীবন ও কর্ম

নীলনদ মমি আর পিরামিডের দেশ

ইতিহাসের জনক হেরোডোটাস ছিলেন গ্রিস দেশের অধিবাসী। প্রাচীন সভ্যতা দেখার আকর্ষণে একবার মিশরে আসেন। অবাক বিস্ময়ে মিশরীয় সভ্যতার নানা অবদান দেখে বুঝতে পেরেছিলেন এই সভ্যতা গড়ে তোলার পেছনে নীলনদের বিশেষ ভূমিকা রয়েছে। এ কারণেই তিনি মন্তব্য করেছেন ‘মিশর নীলনদের দান’। প্রকৃতপক্ষে নগর সভ্যতা গড়ে তুলতে মিশরকে প্রথম পথ দেখিয়েছে নীলনদ। নবোপলীয় যুগে মিশরের কৃষকরা কৃষিকাজ করতে গিয়ে নীলনদকে গভীরভাবে লক্ষ করেছে। তারা কখনো নীলনদকে দেখেছে জীবনের প্রতীক হিসেবে, কখনো বা ভয়ঙ্কর দৈত্য রূপে। নীলনদের জল সেচ করেই কৃষক ফসল ফলাতো। তখন নীলনদকে কৃষক দেখতো আশীর্বাদ হিসাবে। কিন্তু যখন বন্যার জল দু’কূল উপচে পড়তো তখন ভয়ার্ত কৃষক ভাবতোÑবুঝি নীলনদ কোন রাক্ষুসে দৈত্য। তীব্র স্রোতে কেমন গ্রাস করে নেয় লকলকে বেড়ে ওঠা ফসল।   Continue reading নীলনদ মমি আর পিরামিডের দেশ

কিছু কিছু কথা আর কিছু পরিচয়

ভার্সিটি থেকে ফেরার সময় প্রতিদিন আমিন বাজারের কাছে জ্যামে পড়তে হয়। আজও অন্যথা হয়নি। বাসের জানালায় মাথা রেখে ঢুলছিলাম। হটাৎ কানে আসলো অলকা ইয়াগনিকের পরিচিত কণ্ঠস্বর। আশে পাশে তাকালাম কে যেন গানটা বাজাচ্ছে… এর আগে শোনা হয়নি। তবুও খারাপ লাগেনি। দুটো লাইন মনে ছিল।

সন্ধার পর নেটে সার্চ দিলাম। গুগল থেকে খুজেও পেলাম। গানটার কথা ছিল অনেকটা এমন

কিছু কিছু কথা আর কিছু পরিচয়……….

মনে মনে চুপি চুপি  দোলা দিয়ে যায়,

কিছু কিছু মুখের হাসি, দিয়ে যায় চাওয়ার বেশি।

ভরে যায় খুশিতে তখন এ হৃদয়।

আমি হটাৎ একটি গানকে কেনো টেনে আনলাম ???? Continue reading কিছু কিছু কথা আর কিছু পরিচয়

ইতিহাসের এ কি ধারা ?????

কিছুদিন আগে থেকে  ইউরোপের ইতিহাস নিয়ে কাজ করতে শুরু করেছি। কিন্তু  পড়ালেখা যতো বেশি করছি ঘেন্নায় মুখ যে তেতো হয়ে আসে।

শ্লার হারামি ইউরোপীয়রা ইতিহাসে খালি ক্যাথলিক মৌলবাদ, মানুষ খুন রাহাজানি বাদে আর কিছুই করে নাই। সমাজ-সংস্কৃতি নিয়ে কি তাদের কিছুই করার সুযোগ আসে নি।
অবাক হই এই ইউরোপের ইতিহাস নিয়ে আমাদের দেশের কিছু আবুল টাইপের শুশীল নাচন-কুদন করে নিজেদের আধুনিক ভাবে। ইউরোপে যে কাহিনী ঘটেছে উনিশ শতকের গোড়াতে বাংলার সুলতানী আমলেই সেই সেকুলারিজম বিকাশ লাভ করে।

আসলে ইউরোপের প্রজেক্ট বাগাতে গেলে তো আর এই সত্য বলা চলে না। ওখানে তো আর বলা চলে না যে আমাদের দেশে ২৫০০ বছরের পুরাতন নগরের চিহ্ন আছে। আমাদের দেশের প্রাগিতিহাস আছে। মুদ্রাভিত্তিক অর্থনীতি বিকাশের প্রমাণ আছে। আছে টাকশাল নগরী গড়ে ওঠার প্রমাণ।  Continue reading ইতিহাসের এ কি ধারা ?????

এই সমাজে নিশাত বা ওয়াসফিয়ার এভারেস্টে উইঠ্যাও লাভ নাই । চান্দে গিয়াও লাভ নাইক্যা

একদিন একটি পিচ্ছি দৌড়াতে দৌড়াতে একটি ডিপার্টমেন্টার স্টোরে ঢুকলো। সেলসম্যান বললো বাবু কি চাই তোমার। পিচ্চিটা বললো ভাইয়া আমার একটি স্যানিটারি ন্যাপকিন প্রয়োজন । সেলসম্যানরা পরস্পর চাওয়া চাওয়ি শুরু করলো। কিন্তু পিচ্চিটার কোনো বিকার নাই। সে যথারীতি দাঁড়িয়ে রইলো। তখন সেলসম্যানরা বললো বাবু তুমি এটা কি করবে ??

পিচ্চির নির্বিকার উত্তর কেনো আমার ছোট বোনকে পরাতে হবে। সেলসম্যানদের হা করা অবস্থায় পিচ্চিটা বলেই চলেছে কেনো এড দেখেননি। মেয়েরা এই বিশেষ ন্যাপকিন পরে কেমন দৌড়াদৌড়ি আর লাফালাফি করে। আমার বোনটার বয়স ছয়মাস হয়ে গেছে। হাটতে পারেনা। ওকে এটা পরিয়ে দেখতে চাই ও কেমন হাটতে পারে 😦

অনেকটাই অড থিমের এই জোকসটা অনেকে অন্যভাবে নিতে পারেন। আমি সেদিকে কেয়ার করছি না। আসলে বোঝাতে চাইলাম মিডিয়ার রেপ্রিজেন্টেশন এর কথা। ঐ পিচ্চির মনে তৈরি হওয়া ন্যারেটিভটির কথা। যা কিনা পিচ্চিটার সরল মনকে বেশ গরলে নাড়া দিয়েছে। Continue reading এই সমাজে নিশাত বা ওয়াসফিয়ার এভারেস্টে উইঠ্যাও লাভ নাই । চান্দে গিয়াও লাভ নাইক্যা

বটতলার সাহিত্য চর্চায় প্রথম আলো

সিনিয়রদের শুশীল সাজার তেব্র বাসনায় বাসাতে প্রথম আলোর এক কপি রাখা হলেও ওটার খেলার পাতা বাদ আর কিছু দেখি না। বিশেষ করে একমাত্র ফারুক ওয়াসিফ ভাইয়ের লেখা বাদে এডিটোরিয়ালের পাতা তো দেখাই হয় না। তবে এর একটা পাতা অনেক মনোযোগ দিয়ে দেখি। সত্যি তা দেখার মতো । তা হলো এর  খেলার পাতা। সেই সাথে মাঝে মাঝে বের করা সাময়িকীর মধ্যে রস আলো আর স্টেডিয়ামের প্রতি একটা অন্যরকম দুর্বলতা আছেই।

ইউরো ফুটবল শুরু হলো।  প্রিয় দল স্পেন হওয়াতে প্রথম আলোর স্টেডিয়াম পাতায় যে লেখা ছাপা হলো তা পড়তে ইচ্ছে হলো। ………..

সেখানে লেখা ছিল ….

গোধূলির আকাশের মতো লাজরাঙা সারা কার্বোনেরোকে দেখার জন্য আবারও প্রস্তুত হন। প্রস্তুতি নিন সেই রোমান্টিক দৃশ্যের জন্যও: কার্বোনেরোর গোলাপি সিক্ত ঠোঁটে ইকার ক্যাসিয়াসের প্রগাঢ় চুম্বন! Continue reading বটতলার সাহিত্য চর্চায় প্রথম আলো

নববর্ষে ‘বাংলা বসন্তে’র আশঙ্কা

এখন বহির্বিশ্বের রাজনীতি দুটো আন্দোলন ঘিরে আবর্তিত হচ্ছে। একটি ‘আরব বসন্ত’ আর দ্বিতীয়টি ‘অকুপাই মুভমেন্ট’। মধ্যপ্রাচ্যে স্বৈরতন্ত্রের মসনদ কাঁপানো আরব বসন্তের কথা কারও অজানা নয়। অন্যদিকে ‘অকুপাই মুভমেন্ট’ শুরু হয়েছিল নিউইয়র্কে ‘অকুপাই ওয়াল স্ট্রিট’ থেকে, যা ছড়িয়ে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের এক শহর থেকে অন্য শহরে আর ইউরোপ থেকে অস্ট্রেলিয়ায়। প্রাথমিক অবস্থায় ‘অকুপাই মুভমেন্ট’-এর উদ্দেশ্য ছিল বৈষম্যের বিরুদ্ধে এক ধরনের প্রতিবাদ। তবে এটি এখন পরিণত হয়েছে পুঁজিবাদবিরোধী আন্দোলনে, যার বিস্তৃতি বিশ্বব্যাপী। Continue reading নববর্ষে ‘বাংলা বসন্তে’র আশঙ্কা

সেকুলার ধারণার প্রসার ও বাংলার মধ্যযুগ

বাংলাদেশের ইতিহাস প্রকৃত অর্থে বাস্তবতা বিকৃতির ইতিহাস । এটি বললে অনেকেই আতকে উঠতে পারেন। কিন্তু বাস্তবতা বুঝতে পারলে তিনি সহজেই বিষয়টি মেনে নিতে পারবেন। আমাদের দেশের ইতিহাস গবেষকদের মূল সীমাবদ্ধতার ক্ষেত্র বা সমস্যা চিহ্নিত করার দুঃসাহস আমি দেখাবো না শুধু এটুকু বলতে পারি। আমাদের দেশের ইতিহাস চর্চা অনেকটাই থেমে থাকে মধ্যযুগের প্রারম্ভ অর্থাৎ সুলতানী যুগ পর্যন্ত গিয়ে। এই ক্ষেত্রে বাংলার সুলতানী যুগের ইতিহাস অনেকটাই অধরা থেকে যায়। আমরা সুলতানী যুগের ইতিহাস বিশেষত হোসেনশাহী যুগের ইতিহাস অনুসন্ধান প্রসংগে বিষয়টি সহজেই বিশ্লেষণ করতে পারি। ইতিহাসের পরিপ্রেক্ষিত বিবেচনায় আমরা দেখি তুর্কি বিজেতারা বারো শতকের শুরুতে ভারতে আধিপত্য প্রতিষ্ঠা করেন। সেই বিষয়ের সাথে হিসেব মেলাতে গেলে আরো বহুদিন পর প্রায় তের শতকের শুরুতে তাদের রাজনৈতিক সাফল্যের সূচনা ঘটে বাংলায়। বস্তুত বাংলার মধ্যযুগের যাত্রা শুরু হয় এখান থেকেই যেটি আমাদের গবেষণা আর চর্চার অপারগতা হেতু অনেকটাই অন্ধকারে থেকে গেছে।
আমরা দেখি মধ্যযুগের কালপরিসরকে বড় দাগে দুটো পর্বে ভাগ করা যায়। Continue reading সেকুলার ধারণার প্রসার ও বাংলার মধ্যযুগ

এ লাশের মিছিল থামবে কবে?

মো. আদনান আরিফ সালিম অর্ণব
সেদিন দৈনিক আমার দেশসহ দেশের প্রায় প্রতিটি পত্রিকায় দেখলাম অভিশপ্ত শেয়ারবাজারে বিনিয়োগকারী কাজী লিয়াকত আলী যুবরাজের মৃত্যু সংবাদ, পর লিয়াকতের পথ অনুসরণ করেছেন আরও কয়েকজন। জানি না আত্মঘাতী এই লাশের মিছিল থামবে কবে! জীবন যখন কারও কাছে বোঝা হয়ে ওঠে, তখন সে ছুটি নিতে চায়। দৌড়ে পালিয়ে বাঁচতে চায়। প্রকৃতির নিয়ম লঙ্ঘন করে এ দৌড় জীবন থেকে পালিয়ে যাওয়ার দৌড়। শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করে লোকসানের পর লোকসান পরিবার ও সমাজের কাছে লাঞ্ছনা আর হাহাকার সইতে না পেরে রাজধানীর গোপীবাগের আরকে মিশন রোডের ৬৪/৬-জে নম্বরে নিজগৃহে সিলিংফ্যানের সঙ্গে লটকে গেছেন লিয়াকত সাহেব। Continue reading এ লাশের মিছিল থামবে কবে?