চলে গেলেন কালজয়ী প্রত্নতাত্ত্বিক পিটার ড্রুয়েট


PeterDrewettবড় অসময়ে মাত্র ৬৬ বছর বয়সেই চলে গেলেন জনপ্রিয় প্রত্নতাত্ত্বিক সংগঠন ইনস্টিউট অব ফিল্ড আর্কিওলজিস্ট(Institute of Field Archaeologists) প্রতিষ্ঠাতা পিটার ড্রুয়েট (১৯৪৭-২০১৩)। উনার স্মৃতিচারণ করার মতো যোগ্যতা একজন সাধারণ প্রত্নতাত্ত্বিকের থাকার কথা নয়। তবুও উনার কর্মানুরাগী হিসেবে বর্ণাঢ্য কর্মজীবন থেকে কিছু তুলে ধরতে চেষ্টা করবো। প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী তখন। স্কুল কলেজে সায়েন্সে পড়ায় ইতিহাস-ঐতিহ্য সম্পর্কে ধারণা ততটা স্পষ্ট হয়নি। অন্যদিকে প্রত্নতত্ত্ব আরো নতুন আর কঠিন বিষয়। অতীত মানুষের রেখে যাওয়া বস্তুগত নিদর্শন থেকে এখানে তাদের জীবনযাত্রা বুঝতে হয়, রচনা করতে হয় তুলনামূলক ও কার্যকারণ নির্ভর এক ভিন্নধারার ইতিহাস। চৈত্রের কাঠফাটা দুপুরে স্বাধীন স্যারের ফিল্ড আর্কিওলজি ক্লাস ছিলো সবার কাছে আতংকের নাম। তখনি প্রথম পরিচিত হই নন্দিত প্রত্নতাত্ত্বিক পিটার ড্রুয়েটের সাথে।

সহজ বিষয়গুলোকে নিয়ে নানাবিধ ইংরেজির মারপ্যাচ আর গুরুগম্ভীর আলোচনায় সবার নাভিশ্বাস। অন্যদিকে সিনিয়র ভাইয়া-আপুদের ফিল্ড আর্কিওলজি নিয়ে ভীতিপূর্ণ বকবকানিতে সবাই যখন অতিষ্ট ঠিক তেমনি সময় খুলেছিলাম পিটার ড্রুয়েটের (Field Archaeology: An Introduction)  বইটা। তখন থেকেই প্রত্নতত্ত্ব বিষয়টি আস্তে আস্তে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিলো আমার কাছে। সেখানেই ধারণা পেয়েছিলাম প্রত্নতত্ত্ব কী, প্রত্নতাত্ত্বিক মাঠকর্মের প্রাথমিক ধারণা, প্রত্নস্থান গঠন প্রক্রিয়া, প্রত্নস্থান খুজে বের করার নানা পদ্ধতি, খনন পরিকল্পনা নানা ধাপ ও পদ্ধতি, কিভাবে খনন পরবর্তীকালে প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শনের পরিচর্যা করতে হয় প্রভৃতি। পিটার ড্রুয়েট এখানো সহজ ভাষায় আরো বুঝিয়েছিলেন কিভাবে কোনো প্রাচীন/অতীত নিদর্শনকে বিশ্লেষণ করতে হয়। এরপর কিভাবে একটি সর্বজনগ্রাহ্য প্রতিবেদন লিখতে হয় তার দিকনির্দেশনাও সেখানে ছিলো।

গত ৫ এপ্রিল ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের আর্কিওলজি বিষয়ক ওয়েবসাইট ঘাঁটতে গিয়ে যখন পিটার ড্রুয়েটের মৃত্যু সংবাদটা জানতে পেরেছিলাম সত্যি খুব খারাপ লেগেছিলো। গত বছর লুই বিনফোর্ডকে হারিয়েছিলো প্রত্নতাত্ত্বিক পরিবার। এবার হারাতে হলো ড্রুয়েটকে।  ওখানে প্রদর্শিত সংবাদটিতে ড্রুয়েটের সহকর্মীদের বরাত দিয়ে বিগত ১ এপ্রিল তাঁর মৃত্যুর কথা জানানো হয়েছে। বরেণ্যে প্রত্নতাত্ত্বিক ড্রুয়েট অনেকদিন যাবৎ ইনস্টিউট অব আর্কিওলজির সদস্য ছিলেন। তিনি সাসেক্সে পরিচালিত প্রত্নতাত্ত্বিক মাঠকর্মের মূল পরিকল্পনাকারী ছিলেন।  এই ফিল্ড ইউনিটটির (Archaeology South-East) দায়িত্ব বেশ কিছুদিন (১৯৭৩-৯১) পালনের পাশাপাশি দীর্ঘদিন (1991-93) ইনস্টিটিউট অব আর্কিওলজির প্রাগিতিহাস বিভাগের প্রধান ছিলেন তিনি। তিনিই প্রথম সেখানে পরীক্ষামূলক প্রত্নতত্ত্বের মাধ্যমে প্রাগিতিহিাস চর্চার পথ প্রশস্ত করেছিলেন। এর পাশাপাশি ৬০ এর দশক থেকেই অনেকগুলো প্রত্নতাত্ত্বিক খননে প্রধান পরামর্শদাতা হিসেবেও কাজ করেন তিনি। ১৯৭০-৭৩ এই তিন বছর কিছু প্রাচীন কীর্তির সংরক্ষণেও উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখেন তিনি। ১৯৮৩ সালে ইনস্টিটিউট অব ফিল্ড আর্কিওলজিস্ট প্রতিষ্ঠা করার পর ১৯৮৬ সালের দিকে প্রাগৈতিহাসিক প্রত্নতত্ত্ব চর্চায় পি.এইচ.ডি ডিগ্রি লাভ করেন তিনি। বিভিন্ন ব্রিটিশ প্রত্নক্ষেত্রে অবদানের পাশাপাশি ভার্জিন আইল্যান্ড, চেম্যান আইল্যান্ড, বার্বাডোজ ও হংকং এও তিনি উপযুক্ত গবেষণা করেন। প্রত্নতত্ত্বের নানা বিষয়ে তিনি প্রায় ৯ টির মতো গুরুত্বপূর্ণ গ্রন্থ রচনা করেছেন। তার  ফিল্ড আর্কিওলজি বইটি প্রত্নতত্ত্বের বইগুলোর মধ্যে বেস্টসেলার হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। তিনি গবেষণাক্ষেত্রের পাশাপাশি অনেক গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। উদাহরণ হিসেবে সাসেক্স আর্কিওলজিক্যাল সোসাইটির প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালনের কথা বলা যায়। পরে ২০০৪ এর তিনি সাসেক্স বিশ্ববিদ্যালয়ে একজন প্রত্নতত্ত্বের প্রফেসর হিসেবে যোগদান করেন। ২০১৩ সালের ১ এপ্রিল মৃত্যুর পূর্বপর্যন্ত  সেখানেই সেন্টার ফর কমিউনিটি এনগেজমেন্টে প্রফেসর ইমেরিটাস হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি ১৯৪৭ সালে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর মৃত্যুতে প্রত্নতাত্ত্বিক অঙ্গনে এক অপূরণীয় ক্ষতি হলো। একজন প্রত্নতত্ত্বের শিক্ষার্থী হিসেবে বিশ্বের লাখো প্রত্নানুরাগী মানুষের পক্ষ থেকে পিটার ড্রুয়েটের অবদানকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছি।

আরো জানুন… http://www.priyo.com/2013/04/09/15434.html

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s