আদি খাবার ভাত

চাল কিংবা কোনো শস্যদানা মানুষের খাদ্যতালিকায় যুক্ত হওয়ার ইতিহাস অনেক প্রাচীন। এর মূল শিকড় খুঁজতে আমাদের পেছনে যেতে হবে অনেক অনেক দিন। বিভিন্ন প্রত্নস্থানে প্রাপ্ত প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শনে চাল, ধান ও সংশ্লিষ্ট শস্যকণা থেকে মানুষের খাদ্যাভ্যাসে ভাতের অস্তিত্ব সম্পর্কে ধারণা লাভ করা যায়। প্রত্নতাত্ত্বিকদের ধারণা অনুযায়ী, নব্য প্রস্তর যুগের মানুষের স্থায়ী আবাসন তৈরি ও পুরোদস্তুর কৃষিকাজে অভ্যস্ত হয়ে ওঠার সঙ্গে ভাতের ইতিহাস সম্পর্কিত। বিশেষ করে কাঁচা মাংস খাওয়ার অভ্যাস বদলে মানুষ যখন ঝলসানো কিংবা সিদ্ধ মাংস খাওয়া শুরু করে, ভাত বা ওই-জাতীয় খাবার গ্রহণ তখন থেকে শুরু। পাফড রাইস কিংবা বয়েলড রাইস শস্যকণাকে খাবার হিসেবে গ্রহণ করার দুটি ধারা। Continue reading আদি খাবার ভাত

Advertisements

গগণ হরকরা থেকে রবি ঠাকুর আর আমাদের জাতীয় সংগীত

জাতীয় সঙ্গীত নিয়ে আবেগ-বিবেক নাচা গানা সবই হয়েছে। আলোয় এসেছে গীতিকার। হারিয়ে গেছে সুরকার। আধুনিক অভিধায় বলতে গেলে মাইলসের গান লোপাট করে দিয়ে অনু মালিক যা করেছিলো মহামতি ঠাকুর সাপের কাজ অনেকটা সিরামই ছিলো। তবুও শুশীল ডিসকোর্সের কথা মধুতূল্য। কি আর কৈতাম। আমরা যারা চাষা ভূষা চেতনা যাদের একটু কম স্পর্শ করে আসুন গগন হরকরার গানটাই শুনি। ঠাকুরের সাথে মাতম তুলতে ইচ্চে করেনা এমন না। তয় দিলে চোট পাই। যে মৌলবাদী হিন্দু লোকটা নিজেকে ধর্মনিরপেক্ষ বলে প্রচার করেছে। ব্রহ্মা-বিষ্ণু-শিব বাদ দিয়ে নিজের মাথা দিয়েছে ইংরেজপ্রভুর পদতলে তার প্রতি আমার বিন্দুমাত্র শ্রদ্ধা নাই। যেটুকু ঘৃণা আর ধিক্কার আছে সেটা প্রকাশ করতে গিয়েও এনার্জি লস করতে চাইনা। এরপরেও যারা ঠাকুরীয় সঙ্গীত নিয়ে নেচে কুঁদে মরতে চায় তাদের বলবো দূরে গিয়া মুখে ছাই ঘস।  আমার কাছে একজন জীবনানন্দ, একজন সুকান্ত কিংবা সবার উপরে নজরুল অনেক গুরুত্বপূর্ণ। ভালো কাব্যপ্রতিভা থাকলেও ঠাকুর সাপ তার পদলেহী আচরণের জন্য ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যাত। তার অনাসৃষ্টি আর ব্যক্তি ঠাকুর দুটোর প্রতিই তীব্র বিতৃষ্ণা আর ধিক্কারের বমি। আসুন গগন হরকরার গানটির লিরিক্স দেখি। গানটি শুনি….। তারপর ঠাকুরকে লাত্তি মারলেও দেশের প্রতি সম্মান জানিয়ে একবার গাইতে চেষ্টা করি জাতীয় সঙ্গীত। হৃদয়ে ধারণ করি এটাকে।

Continue reading গগণ হরকরা থেকে রবি ঠাকুর আর আমাদের জাতীয় সংগীত

আমার স্মৃতিতে বাংলাদেশের ব্যান্ড সংগীত

10009458_10202087804381789_2120930909_nআমাদের কলেজের নবীন বরণে নিয়ে আসা হলো হাছান ভাই ও তার ব্যান্ড আর্ক। সেইবার প্রথম লাইভ কনসার্টে আমরা বন্ধুরা চরম মজা করলাম। এরপরের বছর আনা হলো গুরু জেমস ও তার ব্যান্ড নগর বাউল। এরপরের বছর বাচ্চু ভাই ও তার ব্যান্ড এল.আর.বি আনার কথা থাকলেও আনা হয়নি। তাই বলে কনসার্ট দেখা থেমে থাকেনি। বরং যখনই সুযোগ পেয়েছি হাত খরচের টাকা বাচিয়ে বন্ধুরা মিলে কন সার্ট দেখতে দৌড় দিয়েছি। Continue reading আমার স্মৃতিতে বাংলাদেশের ব্যান্ড সংগীত

অখণ্ড ভারত উপমহাদেশ

1498095_10201573942175555_1516657526_oএকদা এই ভারত উপমহাদেশে একটি জাতি ছিলো যারা ফ্যান্টাসিক্রান্ত, বাস্তবতা বিবর্জিত, অনুকরন প্রিয় ও হিপ্নোটাইজড। তারা অতীতে ফিরে যাবার ব্যার্থ চেষ্টা করতে করতে অবশেষে সফল হয়েছে। খন্ডিত ভারত উপমহাদেশকে জোড়া লাগাতে এই জাতির অবদান অস্বীকার করার উপায় নেই, এরা নিজেরা ধ্বংস হয়ে গিয়ে আমাদের পূর্ণতা দিয়ে গেছে। তাদের ভ্রাতৃত্ববোধ এতটাই বেশী ছিলো যে আমরাও আভিভুত।
তারা প্রথমে নিজেদের মধ্যে মারামারি করে নদীর পানি দিয়ে দিলো তারা বলল আমাদের এত পানি দিয়ে কি হবে যেখানে আমাদের ভাইরা ওই পাড়ে পানির অভাবে আছে। এরপর তারা গ্যাসও দিয়ে দিলো। আমরা বলেছিলাম সুন্দরবন, সেন্টমার্টিন আর বঙ্গোপসাগর আমাদের দরকার নেই, তারা বলেছে খালি আওয়াজ দিবেন। Continue reading অখণ্ড ভারত উপমহাদেশ

যেভাবে ফুচকা এল..

fuska-palace-online-dhaka-guideকুড়মুড়ে গোলাকৃতির পাপড়ি, কামড় দিলেই ভেঙে যায়। ভেতরে থাকে মসলা মেশানো আলু, বুটডাল আর জিভে জল আনা তেঁতুলের টক। মিরপুর স্টেডিয়ামের বাইরে থেকে শুরু করে ফুটপাতের ধারে, এমনকি বসুন্ধরা সিটির ফুডকোর্টের সীমানা ছাড়িয়ে দেশের শহর-উপশহরের একটি অতি পরিচিত খাবার। শিশু থেকে শুরু করে বুড়োবুড়ি সবার কাছে সমান জনপ্রিয় খাবারটির বৃহস্পতি তুঙ্গে থাকে প্রেমিক-প্রেমিকাদের কাছে। বলছি অসম্ভব মজাদার-সুস্বাদু, দেশী আমেজে তৈরি ফুচকার কথা। ফুচকা খায়নি এমন কাউকে হয়তো পাওয়া যাবে না। তবু কোথা থেকে এসেছিল এই ফুচকা, কবে থেকেই এর প্রচলন, এসব নিয়ে কথা বলতে গেলে চুপ হয়ে যেতে হয় উপযুক্ত তথ্যসূত্রের অভাবে। Continue reading যেভাবে ফুচকা এল..

মাইলসকে গান গাইতে না দেয়া আজকের অঘটন নাকি ঐতিহাসিক প্রতিশোধ

রোল ফিতার ক্যাসেটের যুগ। খুব সম্ভবত সিক্স সেভেনে পড়ি। হামিন ভাইয়া-শাফিন ভাইয়া উনাদের কাউকেই চিনতাম না তখন।  কিন্তু চিনতাম তাঁদের সুর। সেই গানগুলো এখনো ঘুমানোর আগে লেপমুড়ি দিলে মিউজিক প্লেয়ার বাদেই শুনতে পাই। আজ হটাৎ ভাবছিলাম আজকে প্রিয় ব্যান্ডটিকে গান গাইতে না দেয়ার পেছনে কোনো ঐতিহাসিক সুড়সুড়ি কাজ করে নাইতো ? অবশেষে মনে হয় ধরতে পেরেছি………..। কিংবা পারি নাই.. বাকিটুকু প্রিয় পাঠক আপনাদের দায়িত্ব। আমি বরলে চাইছি আজকে মাইলকে গান গাইতে না দেয়া আর কিছু না, ঐতিহাসিক প্রতিশোধ। এ প্রতিশোধ ভারতীয় ইগো ফিরে পাওয়ার পক্ষে। সুর নকলকারী অনু মালিকের সেই ক্ষতিপূরণ সুদের আসলে উসুল করে নেয়ার প্রতিশোধ। এ প্রতিশোধ দীর্ঘ ৭ বছরের দহন জ্বালা মেটানোর প্রতিশোধ……..। আর সেটাও বাংলাদেশের বুকে। Continue reading মাইলসকে গান গাইতে না দেয়া আজকের অঘটন নাকি ঐতিহাসিক প্রতিশোধ

কনসার্ট, নাচন-কুদন নাকি আত্মশ্লাঘার বর্বরোচিত মঞ্চায়ন

বেলা সাড়ে তিনটার মতো হবে। মিরপুর থেকে বাসে চেপেছি কর্মস্থল কাওরানবাজারের দিকে যাবো। সাড়ে ছয়টাতেও অফিসে পৌঁছতে ব্যর্থ হয়ে পায়ে হেঁটে রওয়ানা হই কাওরান বাজারের দিকে। ইতোমধ্যে এক মুরুব্বি বলেই বসলেন কে নাকি মরছে। আমি ভাবলাব ব্যস্ত সড়কে হয়তো এক্সিডেন্ট হয়েছে। কিন্তু না, উনি কৈলেন ইন্ডিয়া থেকে মরতে আইছে এক বেটা, লগে অনেগুলা ছেড়ি আর ঢাক-ঢোল বাইদ্য বাজনা নিয়া আইছে। আমি জানতে চেলাম কাকা ঐ লোকটা মরলো কিভাবে? চাচা মিয়ার সদুত্বর হাউয়ার পুতে বাল-ছাল পিটাইতেছে আর আমরা জান দিতেছে। পুলাডার নাক দিয়া রক্ত উঠতেছে নিয়া যামু বার্ডেমে। মাঙ্গের নাতি মরতে বৈছে দেইখ্যাই তো রাস্তায় আর গাড়ি চলে না। বলছিলাম পাবলিক রিঅ্যাকশানের কথা। Continue reading কনসার্ট, নাচন-কুদন নাকি আত্মশ্লাঘার বর্বরোচিত মঞ্চায়ন

সঙ’লাপ নাকি ঐতিহাসিক বুজরুকি ???

[১৮+পোস্ট, নিজ দায়িত্বে ঢুকবেন] অনেক পুলাপাইন জ্ঞানগর্ভ জাকির নায়েককে কটাক্ষ কৈরা জোকার লায়েক বলে থাকে। হুম এই বেচারা তার নামের স্বার্থকতা প্রমাণ করিলেন। আপনি অনেক বুঝদার লোক, জ্ঞানী আলেম তাই বৈলা আপনি কি Sunny Leone কে বুঝাইতে যাইবেন যে ব্যাহেন জি আপনে পর্নগ্রাফি কারনা বান্ধ কি জিয়ে, মানব জাতিকে লিয়ে ওহি বাড়া খাতারনাক চিজ হ্যায়। ইউবা সামাজকো চুন চুন কার দাবাহ কার দিয়া আপন য্যায়সি কামিনে হারকাত কারনে ওয়ালে কি চিজ দেখ নে ছে। রুখ যাইয়ে না ব্যাহেন জি। আপকো মেরি পারওয়ার দেগার কি কাসাম। ….. মিষ্টার জাকির নায়েক কোনো লাভ নাই।

আপনার এই ধরণের সিদ্ধান্ত আর টয়লেটে বৈসা জিকিরের চেষ্টা একই কথা। আমরা স্বীকার করছি আপনি অনেক বড় তাত্ত্বিক, অনেক বড় মাতবর কিন্তু সব জ্ঞানের উপরে আছে মাত্রাজ্ঞান আপনি সেটা ছাড়াইছেন। আপনি বেয়াক্কেলের মতো তসলিমার মতো একটা Milf রে তর্কের আহ্বান জানাইছেন কিনা জানি না। তয় বাজারে খবর যেহেতু চাউর হৈছে, ফেসবুকীয় ফকিন্নি আর সিঙ্গেল প্যারেন্ট চাইল্ড গুলা কয়দিন বেশ সুন্দর অর্গ্যাজমিক আনন্দে ইসলাম নিয়া গালাগাল করার সুযোগ পাইয়া গেলো। তাই ধিক্কার আপনাদের মতো আলেম নামের পণ্ডিতমূর্খদের জন্য। আপনাদের জ্ঞান আপনাদের পকেটে রাখুন। অতিরিক্ত হৈলে সেটাকে রাস্তাঘাটে ছড়াইতে যাইয়েন না। তাইলে পি.এইচ.ডি সেমিনারে কিসু বান্দর দর্শক দাওয়াত দেয়া আর আপনার জ্ঞানচর্চায় কোনো পার্থক্য থাকবে না। সেই একই সাথে মিলফ তসলিমার তামাম ভক্তকূলের উদ্দেশ্যে বলতে চাই Continue reading সঙ’লাপ নাকি ঐতিহাসিক বুজরুকি ???

প্যান্টের উপর পরা আন্ডারওয়্যার আর চলচিত্রে আরোপিত সেন্সর এ একই কথা

এই পোস্টে এডকৃত ভারতীয় মিউজিক ভিডিওগুলা দেইখ্যাই খ্যাক কৈরা ওঠার কিসু নাই। পাশাপাশি আরেকটা কথা বৈলা রাখি আমি বরাবরই সেন্সরের বিপক্ষে। সো কোনোদিনই শ্লীল অশ্লীলের ধার ধারিনা যেখানে আমার কাছে মূখ্য প্রসঙ্গ বাংলাদেশ। তবে সবথেকে বড় কথা এই গানটা বানাইতে তেমন কেনো আহামরি ক্যামেরা কিংবা ফ্রেমিং ব্যবহৃত হয়নাই তারপরেও তার চিত্রায়নটা যথেষ্ঠ আগ্রহোদ্দীপক। যথেষ্ঠ সুবিধা থাকার পরেও আমাদের দেশে কেনো এর থেকে উন্নত কোয়ালিটির সিনেমার গান কিংবা সিনেমার চিত্রায়ন হচ্ছে না। এক অগ্নি যেটা করে দেখিয়েছে সেটা আমাদের এগিয়ে যাওয়ার স্মারক হলেও আমরা এখনো পিছিয়ে আছি প্রায় ১২ বছর। Continue reading প্যান্টের উপর পরা আন্ডারওয়্যার আর চলচিত্রে আরোপিত সেন্সর এ একই কথা

রহস্য পত্রিকার রহস্যময় আচরণ

আগে শুনতাম যারা লেখাপড়া করেছেন, যাদের মধ্যে সৃষ্টিশীলতা আছে কিংবা মানব জাতি, সমাজ, সংস্কৃতি ও সভ্যতার জন্য নতুন কিছু দিতে পারে তারাই দুই এক কলম লেখালিখি করে। কিন্তু আস্তে আস্তে দেখতেছি কিছু অপদার্থ ইতরের পদচারণায় লেখালিখির জগত ডোমিন্যাটিক্স পর্নগ্রাফি সমতূল্য হতে চলেছে। বিশেষত বলতে চাই রহস্য পত্রিকার কথা। আমার পাঠক জীবনের হাতেখড়ি সেই ক্লাস থ্রি-ফোরে থাকতে আর তাও এই সেবা প্রকাশনীর হাত ধরে।

এই রহস্য পত্রিকার সাথে আমার পরিচয় ক্লাস ফাইভে। বলতে গেলে তার অন্ধ ফ্যান ছিলাম। কিন্তু কিছুদিন যাবৎ লক্ষ করছি সচলায়নের অচল পয়সা কিছু লেখক নামের চটিবিদ তাদের বিদ্যে জাহির করতে গিয়ে রহস্য পত্রিকাকেও কলুষিত করতে শুরু করেছে। আপনাদের বেশি সুড়সুড়ি, ইসলাম নিয়া কিংবা কোনো ধর্ম নিয়া না চুলকাইলে আপনাদের রাস্তাঘাটে অটোঅর্গ্যাজম হৈয়া যায়, এতো ঘোরতর বিপদের কথা। তাইলে বাছা, লেখালিখি কেনো, প্রয়োজনে আপনার গার্লফ্রেন্ড থিকা একটা Continue reading রহস্য পত্রিকার রহস্যময় আচরণ