সঙ’লাপ নাকি ঐতিহাসিক বুজরুকি ???


[১৮+পোস্ট, নিজ দায়িত্বে ঢুকবেন] অনেক পুলাপাইন জ্ঞানগর্ভ জাকির নায়েককে কটাক্ষ কৈরা জোকার লায়েক বলে থাকে। হুম এই বেচারা তার নামের স্বার্থকতা প্রমাণ করিলেন। আপনি অনেক বুঝদার লোক, জ্ঞানী আলেম তাই বৈলা আপনি কি Sunny Leone কে বুঝাইতে যাইবেন যে ব্যাহেন জি আপনে পর্নগ্রাফি কারনা বান্ধ কি জিয়ে, মানব জাতিকে লিয়ে ওহি বাড়া খাতারনাক চিজ হ্যায়। ইউবা সামাজকো চুন চুন কার দাবাহ কার দিয়া আপন য্যায়সি কামিনে হারকাত কারনে ওয়ালে কি চিজ দেখ নে ছে। রুখ যাইয়ে না ব্যাহেন জি। আপকো মেরি পারওয়ার দেগার কি কাসাম। ….. মিষ্টার জাকির নায়েক কোনো লাভ নাই।

আপনার এই ধরণের সিদ্ধান্ত আর টয়লেটে বৈসা জিকিরের চেষ্টা একই কথা। আমরা স্বীকার করছি আপনি অনেক বড় তাত্ত্বিক, অনেক বড় মাতবর কিন্তু সব জ্ঞানের উপরে আছে মাত্রাজ্ঞান আপনি সেটা ছাড়াইছেন। আপনি বেয়াক্কেলের মতো তসলিমার মতো একটা Milf রে তর্কের আহ্বান জানাইছেন কিনা জানি না। তয় বাজারে খবর যেহেতু চাউর হৈছে, ফেসবুকীয় ফকিন্নি আর সিঙ্গেল প্যারেন্ট চাইল্ড গুলা কয়দিন বেশ সুন্দর অর্গ্যাজমিক আনন্দে ইসলাম নিয়া গালাগাল করার সুযোগ পাইয়া গেলো। তাই ধিক্কার আপনাদের মতো আলেম নামের পণ্ডিতমূর্খদের জন্য। আপনাদের জ্ঞান আপনাদের পকেটে রাখুন। অতিরিক্ত হৈলে সেটাকে রাস্তাঘাটে ছড়াইতে যাইয়েন না। তাইলে পি.এইচ.ডি সেমিনারে কিসু বান্দর দর্শক দাওয়াত দেয়া আর আপনার জ্ঞানচর্চায় কোনো পার্থক্য থাকবে না। সেই একই সাথে মিলফ তসলিমার তামাম ভক্তকূলের উদ্দেশ্যে বলতে চাই তাহার ক্ষেমতা থাকলে আমাদের সামনে আইসা তর্ক করতে কও। খালি তার আগে নিশ্চিত কৈরা নিতে হবে যে বাকযুদ্ধের মধ্যেও এইডস ছড়ায় না তো। তাইলে তো আবার ঘোরতর বিপদ।

কারো মনে দুক্কু লাগলেও কিছু বলার নাই। আমি আবারো বলতে চাই দেড় বেটারি হুজুরদের জন্যই শ্লার নাস্তিক্যবাদ ব্যবসায়ী মাঙ্গের পুতেরা ধর্ম নিয়া উল্টা পাল্টা কথা কয়। পরে পরিস্থিতি খ্রাপ দেইখা হেলিকপ্টারে কৈরা পালায়। পুলিশের ব্রাশফায়ারে মারা যায় এতিম পুলাপাইন। পুলিশের ডান্ডার বাড়ি খায় আজজনতা।  সত্যিকার ধর্মীয় নেতা ছিলেন ওমর আল মুখতার, সৈয়দ কুতুব হাসান আল বান্না এরা। মরণের ভয় ছিলো না। ওমর আল মুখতারও তো আপনাদের মতো গণতন্ত্র োদাইতে আসতে পারতেন, লিবিয়াবাসীকে বিপদের মুখে ফেলাইয়া ইতালির লগে সন্ধি করতে পারতেন করেন না।

তাই হাজারো ভক্তকূলের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে বলতে চাই জাকির সাহেব, আপনার মতো লোক বহুত আসছে গেছে। ভবিষ্যতেও আসবে। কলাটাও ফলাইতে পারবে না। মধ্যযুগের ক্যাথলিক ধর্মব্যবসায়ীরা খ্রিস্টানধর্মরে পচাইছে, লাদেনের মতো কিছু খানকির পুলা ইসলাম ধর্মকে সস্ত্রাসবাদী প্রমাণ করেছে, শিবসেনার ডাকাইতগুলা হিন্দু ধর্মকে পাথরযুগে পাঠাইদিছে। আর তাদের দেয়া সুযোগ গুলোকে কাজে লাগাচ্ছে বেজন্মা নাস্তিক্যবাদের ব্যবসায়ীরা।  জাকির নায়েক সাহেব আপনার কথা বলার থাকে যাদের ঈমান আছে তাদের সাথে বলেন।  সত্যিকার বিশ্বাসঅলা হিন্দুদের সাথে বলেন। তাই বৈলা বেশ্যাপাড়ায় গিয়া হামদ-নাত গাইয়া কোনো লাভ নাই। ঐখানে গিয়া গাইতে হয় চিকনি চামেলী-জালেবী বাই-মুন্নি বদনাম হুয়ি নাইলে শিলা কি জওয়ানী বুঝা গেছে। সো যাদের ঈমানের ভিত বেশি শক্তিশালী তারা আমার পোস্ট থেকে দূরে থাকেন।

বৈলা রাখা ভালো তসলিমার মতো জ্ঞানবিক্রেতা তথাকথিত নারী !! রা সব সময় মোলায়েম হুজুর খোঁজে, হেফাজতি খোজে। তারপর আল্লামা অমুক তমুক খুইজা তাদের সামনেই নারী স্বাধীনতা, বাল-ছালা োদাইতে যায়। কিন্তু যারা যুক্তিবাদী তাদের সামনে দেখা যায় না। ঠিক একইভাবে যুক্তিবাদীদের দেড় বেটারি হুজুররাও কয় শয়তানের চেলা। তাদের মাইয়্যাদের কেলাস ফোর পর্যন্ত পড়ানো, গুইনা চাইরখান বিয়া করা আরো কত্ত সুন্দর সুন্দর ফতোয়া আর সামাজিক বাণী তাদের সামনে কৈতে গেলে তো বিপদ। তাই যুক্তিবাদীরা নি:সন্দেহে শয়তানের চেলা। কি আর করা ?

আর তসলিমার মতো নারীত্ব বিক্রেতারা তো ভয়েই তাদের ছায়া মাড়ায় না। কারণ যুক্তির সামনে আইলে সোজা প্রশ্ন আসতে পারে। আপনাদের দৃষ্টিতে পুরুষ দ্বারা নারী নির্যাতিত। তাইলে আপনারা নারীরা যখন আক্রমণাত্মক সমকামী হয়ে ওঠেন। আপনারাই তো নারীদের আক্রমণ করেন। অনেক সংবাদপত্রে দেখেছি আপনাদের মতো কিছু বিকৃত রুচির মহিলা পুরুষ আক্রমণ করে রিভার্স গ্যাংরেপ করেছিলেন ফ্রান্সে, সেক্ষেত্রে দায়ী ছিলো কারা ? আপ্নারা যখন দুগ্ধবতী গাভীর মতো বুকের উপর [………………. Sensored]]] ভাষায় প্রকাশ অযোগ্য শ্লোগান লিখে আন্দোলন ফলাইতে যান এখানে ওখানে সেখানে কি ধরণের নারীত্ব প্রকাশ পায়। নাকি ঐটা নিছক বিভ্রান্তিকরভাবে আপনাদের পুরুষ হয়ে ওঠার অপচেষ্টা মাত্র। সবথেকে বড়কথা আপনাদের মতো তথাকথিত অতি এগিয়ে থাকা নারীরা বিশেষত আপনার মতো বাইসেক্সুয়াল নারীরা যখন লেসবিয়ান ডোমিন্যাটিক করে সেখানে পুরুষের ভূমিকা কোথায়। আপনারাই যখন প্রতিপত্তির জোরে নারী হয়ে আরেক নারীকে সাবমিশনে নেন সেখানে পুরুষদের অবস্থান কোথায় ?

সবথেকে বড় কথা অসহায় গৃহকর্মী যখন আরেকজন মহিলার হাতে নির্যাতিত হয় তখন তসলিমার মতো নারীদের স্বাধীনতা কোথায় যায়? যখন দরিদ্র নারীকে গুলি করে কাঁটাতারে লটকে দেয়া হয় তখন তসলিমারা কোথায় থাকে? তখন বাসায় গৃহকর্মী কোনো বালিকাকে তার সমকামী মালকিন জোরপূর্বক হেয়ার ব্রাশের হ্যান্ডেল দিয়ে স্কুইজিং করে খুশি কবীরদের দৃষ্টি তখন কোথায় থাকে।   আমি জানি আমার সোজা সাপ্টা এই প্রশ্নগুলো উত্তর দেয়ার ক্ষমতা তসলিমা নাসরিন কিংবা তার জাতের নারী ব্যবসায়ীদের নাই। তাই তাদের যতো জোকারি জাকির সাহেবদের মতো সরলমনা নিরীহ লোকদের সাথে। কুমিরের সাথে লড়াই করার হিম্মত থাকে পানিতে নামুন। উপযুক্ত ব্যক্তিরা আপনাদের সাথে আলোচনা করতে সব সময় প্রস্তুত আছে। সবথেকে বড় কথা আপনাদের যদি পুরুষ হৈতে এতোই ইচ্ছা করে রাস্তাঘাটে ফাল না দিয়া ডাক্তারের স্মরণাপন্ন হন। প্রয়োজনে ট্রান্সপ্লান্ট পেনিস যুক্তকরুন। ইঞ্জেকশন নিন, হরমোন নিন। অযথা পুরুষ আক্রমণ করেন কেনো? নিজেরাই পুরুষ হয়ে যান।  মুখে মুখে আধুনিকতার বুলি আওড়ান কিন্তু কাজে তো সেই সনাতনীই থেকে গেছেন। বি স্মার্ট গাইজ, ডোন্ট বিহেইভ লাইক আ বিস্ট এজ ইউ পিপল অলওয়েজ ডু।

কিন্তু আমি জানি তসলিমা নাসরিনের মতো একশ’ নারী ব্যাপারি যুক্তিবাদীদের সামনে এসে পাঁচ মিনিট তর্ক করার হিম্মত রাখেনা। তাইতো তাদের টার্গেটি হুজুররা, নিরীহ আবুল টাইপের পাঠকরা আর তাদের মতো নারীর ব্যাপারীরাই। হয়তো দেখা গেলো ক্লিভেজ আর বটমটপ বাইর কৈরা একটা মিনি স্কার্ট পৈরা জাকির সাহেবের সামনে হাজির হবে সে। ঐটাতেই বেচারা লজ্জায় ত্রাহি মধুসূদন হৈয়া মৈরা যাবে। তখন আর কথা কি বলবে? হুম এইরকম নজির আমরা দেখেছি বাংলাদেশে। হেফাজতি এক হুজুরকে নিয়ে এসে বসানো হয়েছিলো এক গরম পোশাক পরিহিতা মহিলার পাশে। ঐ মহিলা পারলে  ইচ্ছে করেই শিৎকারের স্টাইলে গরম নি:শ্বাস ফেলছিলো হুজুরের দিকে। ওতে লোকটার ভয়েই অবস্থা খারাপ। সে আর কি কথা বলবে ? এইগুলো অনেক পুরাতন আদি রসাত্মক টেকনিক। তাই এইটা নিয়া যারা ফাল দিতেছেন কিংবা যে সকল তসলিমাভক্ত নাচতেছে তাদের জন্য আফসোস করা বাদে আর কিছু করার নাই। আর ইদিকে জাকির নায়েক সাহেবের অগণিত ভক্তকূলের উদ্দেশ্যে বলতে চাই আগে অবস্থা বুঝুন তারপর পেঁচাল পাড়েন। অযথা ফ্যাচ ফ্যাচ কৈরেন না ? আর আপনাদের গুরুরে থামান, টয়লেটে বৈসা জিকির করা কখনোই ঈমানদারের পরিচয় না।

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s