Category Archives: রাজনীতি

দিস ইজ বেয়াদবি, এক্কেবারে বেয়াদবি তাও বাজেট নিয়ে

displayপাস হয়ে হয়ে গেলো স্বনির্বাচিত সরকারের প্রথম বাজেট। বিভিন্ন অর্থনৈতিক বিশ্লেষকের ঝাঁঝালো মন্তব্য। টিভি ক্যামেরার ফোকাস, স্ট্রিল ক্যামেরার ফ্লাশবাল্বের আলোয় মন্ত্রীমহোদয়ের চুলবিহীন চকচকে মাথাটা আরো গ্লেস দিচ্ছে। এই সময় কিছু অপছন্দের প্রশ্ন করে উনাকে বিব্রত করতে চাইনি। কারণ গণ্ডমুর্খ হলেও আমরা জানি দিস ইজ বেয়াদপি, এক্কেবারে  বেয়াদপি। তবুও আপনি নিজের নেত্রীর ইচ্ছায় আমাদের মতামতের তোয়াক্কা না করে স্বনির্বাচিত সাংসদ তারপর মন্ত্রী। অনিচ্ছা এবং নিতান্ত বিরক্তি থাকলেও কিছু প্রশ্নর উত্তর যে আমাদের দিতেই হয়।

* বাংলাদেশের বাজেট মানেই বিদেশী বিনিয়োগ নির্ভরতা। একেকটি দুর্বল মেরুদণ্ডবিশিষ্ট সরকার সময় মত সেটা বাড়িয়ে তাদের মেরুদণ্ড শক্ত করেছে। কিন্তু আপনি এমন কি করলেন যে এবারের বাজেটে  বৈদেশিক বিনিয়োগ অর্ধেক হয়ে গেছে।  Continue reading দিস ইজ বেয়াদবি, এক্কেবারে বেয়াদবি তাও বাজেট নিয়ে

Advertisements

আমরা যারা ডাক্তার পেটাই !!!

dr-baby-620x349ঘরের খাও বনের মোষ তাড়াও!!!
ঘটনাটা বাস্তবে না হোক ডাক্তারি পেশার সাথে অনেকটাই যায়। আর ঘরের ভাত খেয়ে অন্তত বনে না হোক ঢামেক এ গিয়ে রোগী খেদানো, নিউরোসার্জারি, হার্ট সার্জারি, অ্যাবডোমেনাল বিবিধ সার্জারির জটিল কাজ মুফতে করেন কিছু চিকিৎসক। দিনে মাত্র তিন থেকে পাঁচটা সিঙ্গাড়া আর কয়েক কাপ লাল চায়ের বদলে চলে তাদের সেবাদান। মাস শেষে সরকার থেকে ফুটো পয়সাও বরাদ্দ নেই তাদের জন্য। যা নিজ চোখে দেখে না আসলে বিশ্বাস করতাম না। ফলে এতোদিন মানবাধিকার নিয়ে অনেক কথা উঠলেও এবার ডাক্তার অধিকারের বিষয়টি ঘুরে ফিরে এসেছে।

আজ দৈনিক পত্রিকাগুলো!!!
যখন জানালো ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ছয় অনারারি চিকিৎসকের ওপর দুর্বৃত্তরা হামলে পড়েছে তখন অন্তত আমার জন্য সহ্য করা কঠিন হয়েছে। বিশেষ করে সংবাদবাণিজ্য আর লেফাফা দুরস্তির ষণ্ডাতান্ত্রিক সাংবাদিকতায় আমার কখনোই আগ্রহ ছিলোনা। ষণ্ডাতন্ত্র ও বুদ্ধিবৃত্তিকে এক করে ফেলার মতো ভুল সবাই করলে আমি অন্তত করতে আগ্রহী নই। পাশাপাশি কতিপয় ফরমায়েশি সাংবাদিকের মতো ডাক্তার নাম শুনলেই পশ্চৎদেশ জ্বালা করার উপযুক্ত কারণ Continue reading আমরা যারা ডাক্তার পেটাই !!!

বাঙালি সেকুলারের মন (পর্ব-০১)

murad_05_1282935433_1-1বাঙালি সেকুলারের মন। অনেকটা বর্ষার আকাশে দেখা রংধনুর মত। হটাৎ আলো ঝলমল করে উঠে তারপর মিলিয়ে যায়। এর সাথে রাস্তার পাশের সুলভ শৌচাগারেরও অনেক সাদৃশ্য আছে। ছবিতে সাইনবোর্ডে দেখতে সুন্দর, কাছে গেলে দুর্গন্ধ, বমি ঠেলে আসতে চায়। এখানে নামটা শৌচাগার মলত্যাগ-মুত্রবিসর্জন সবাই চলে সেখানে। আর নামটা সেকুলার সেখানে ঈদের সময় ইসলাম, পুজোয়-বৈশাকে হিন্দুয়ানি কিংবা বড় দিনের কেকটাও বেশ মজা করে খাওয়া চলে। দোল পুর্নিমার দিনে বৌদ্ধ মন্দিরে গিয়ে সুন্দরী ভিক্ষুনীদের দিকে ক্ষুধার্ত শকুনের মতো শ্যেন দৃষ্টি দিতেও বাঙালি সেকুলারের জুড়ি নাই।

ঈদের দিনে তেমন সুবিধা করতে না পারায় তারা দূর্গোৎসবের কুমারি পূজার দিন ডি.এস.এল আর নিয়া ভিড় জমায় মণ্ডপে মণ্ডপে। দোল খেলতে গিয়ে চোখ মেলে চারদিকে দেখে কোথায় মেয়েদের জটলাটা। তারপর শুধু বালাম পিচকারি, তুনে মুঝে মারি বাজার অপেক্ষা। এরপর টিভি টকশো, পোশাকের উগ্রতায় তারা এককাঠি সরেস, নারী অধিকারের নামে কথার তুবড়ি ছোটে তাদের। কিন্তু কখনো তাদের কথায় আসেনি শহরে মেয়েদের জন্য Continue reading বাঙালি সেকুলারের মন (পর্ব-০১)

মৌলবাদী মোদি, সেকুলার কংগ্রেস ও তার বুদ্ধিবৃত্তিক পাণ্ডাদের কথা

ভারত বিভাগের প্রায় ১০ বছর আগে, ১৯৩৭ সালে প্রায় ৯৭ শতাংশ হিন্দু সদস্যের দল হিসেবে কংগ্রেস পরিচিতি লাভ করে একটি হিন্দু রাজনৈতিক দল হিসেবে। তবে তাদের এজেন্ডায় একটি সেক্যুলার দল হিসেবেই পরিচিত করানো হয়েছিল, ভারত বিভাগ নিয়ে তাদের বিশেষ মাথাব্যথাও ছিল না বললে চলে। এক্ষেত্রে পণ্ডিত জওহর লাল নেহরুকে ধন্যবাদ দিতে পারে কংগ্রেস, কারণ তাঁর হাত ধরেই রাজনৈতিক ক্ষেত্রে সেক্যুলারিজম এবং অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে সমাজতন্ত্র প্রতিষ্ঠার পথ করে নেয়। এই বিষয়গুলোকে সুন্দরভাবে সামনের দিকে ঠেলে দিয়ে বামপন্থার নামে মৌলবাদী হিন্দুত্বের পেছনে শক্ত অবস্থান নিয়েছিলেন কিছু ব্যক্তি। অন্যদিকে প্রগতিশীল ভাব ধরে কংগ্রেসের জ্ঞানতাত্ত্বিক পাণ্ডা হিসেবে নিজেদের সেকুলার অবস্থান জারি রাখেন তারা। কথায় কথায় বিরোধিতার খাতিরে বিরোধিতা কিংবা বাংলাদেশী তথাকথিত সেকুলার বুদ্ধিবেশ্যাদের মতো কৌশলী দুর্বোধ্য অপশব্দের কিছু প্রবন্ধ রচনায় গাঁয়ে মানেনা আপনি মোড়ল টাইপের বুদ্ধিজীবির Continue reading মৌলবাদী মোদি, সেকুলার কংগ্রেস ও তার বুদ্ধিবৃত্তিক পাণ্ডাদের কথা

বিশ্বের সাজানো বিপ্লব তথা ম্যানুফ্যাকচারড রেভল্যুশান

https://i0.wp.com/www.tomatobubble.com/sitebuildercontent/sitebuilderpictures/tumblr_mdy00.jpgগত পাঁচ বছরে বিভিন্ন দেশের রাজনৈতিক ক্ষমতা পরিবর্তনের প্রেক্ষাপটে যে প্রশ্ন বারবার ঘুরেফিরে এসেছে তা হলো, কোন বিপ্লব আসলে বিপ্লব নয়। ২০০০ সালে সার্বিয়ায় স্লোবোদান মিলোসেভিচের (Slobodan Milosevic) পতন পরবর্তীকালে জর্জিয়ার এডওয়ার্ড শেভার্দনাদজে (Edward Shevardnadze), কিরগিস্তানের আস্কার আকায়েভ (Askar Akayev) ও ২০০৪-এর নির্বাচনে ইউক্রেনের ভিক্তর ইউশেভচেঙ্কোর (Viktor Yushchenko) পতনের দিকে লক্ষ করলে এ প্রশ্নের ভিত্তি সম্পর্কে অনুমান করা যায়। কিছু বিশ্লেষকের ধারণা, এ ধরনের ঘটনাগুলো সমস্যায়িত নয়। তারা এ প্রসঙ্গে যুক্তি-তর্ক উত্থাপন করতে চাইছেন। তাদের দৃষ্টিতে এগুলো ১৯৮৯-এর ঘটনার ধারাবাহিকতায় অবশ্যম্ভাবী হয়ে যাওয়া জনগণের স্বতঃস্ফূর্ত আন্দোলন। Continue reading বিশ্বের সাজানো বিপ্লব তথা ম্যানুফ্যাকচারড রেভল্যুশান

সঙ’লাপ নাকি ঐতিহাসিক বুজরুকি ???

[১৮+পোস্ট, নিজ দায়িত্বে ঢুকবেন] অনেক পুলাপাইন জ্ঞানগর্ভ জাকির নায়েককে কটাক্ষ কৈরা জোকার লায়েক বলে থাকে। হুম এই বেচারা তার নামের স্বার্থকতা প্রমাণ করিলেন। আপনি অনেক বুঝদার লোক, জ্ঞানী আলেম তাই বৈলা আপনি কি Sunny Leone কে বুঝাইতে যাইবেন যে ব্যাহেন জি আপনে পর্নগ্রাফি কারনা বান্ধ কি জিয়ে, মানব জাতিকে লিয়ে ওহি বাড়া খাতারনাক চিজ হ্যায়। ইউবা সামাজকো চুন চুন কার দাবাহ কার দিয়া আপন য্যায়সি কামিনে হারকাত কারনে ওয়ালে কি চিজ দেখ নে ছে। রুখ যাইয়ে না ব্যাহেন জি। আপকো মেরি পারওয়ার দেগার কি কাসাম। ….. মিষ্টার জাকির নায়েক কোনো লাভ নাই।

আপনার এই ধরণের সিদ্ধান্ত আর টয়লেটে বৈসা জিকিরের চেষ্টা একই কথা। আমরা স্বীকার করছি আপনি অনেক বড় তাত্ত্বিক, অনেক বড় মাতবর কিন্তু সব জ্ঞানের উপরে আছে মাত্রাজ্ঞান আপনি সেটা ছাড়াইছেন। আপনি বেয়াক্কেলের মতো তসলিমার মতো একটা Milf রে তর্কের আহ্বান জানাইছেন কিনা জানি না। তয় বাজারে খবর যেহেতু চাউর হৈছে, ফেসবুকীয় ফকিন্নি আর সিঙ্গেল প্যারেন্ট চাইল্ড গুলা কয়দিন বেশ সুন্দর অর্গ্যাজমিক আনন্দে ইসলাম নিয়া গালাগাল করার সুযোগ পাইয়া গেলো। তাই ধিক্কার আপনাদের মতো আলেম নামের পণ্ডিতমূর্খদের জন্য। আপনাদের জ্ঞান আপনাদের পকেটে রাখুন। অতিরিক্ত হৈলে সেটাকে রাস্তাঘাটে ছড়াইতে যাইয়েন না। তাইলে পি.এইচ.ডি সেমিনারে কিসু বান্দর দর্শক দাওয়াত দেয়া আর আপনার জ্ঞানচর্চায় কোনো পার্থক্য থাকবে না। সেই একই সাথে মিলফ তসলিমার তামাম ভক্তকূলের উদ্দেশ্যে বলতে চাই Continue reading সঙ’লাপ নাকি ঐতিহাসিক বুজরুকি ???

গুণ্ডে নিয়ে গুণ্ডামি

গ্রাম বাংলার বহুল প্রচলিত একটা অশ্লীল টাইপের প্রবাদ হচ্ছে ‌’চিমটি দিলে বিচার বসায়, চিপায় নিলে ঘোমটা দেয়’। সম্প্রতী মুক্তিপ্রাপ্ত হিন্দি চলচিত্র Gunday নিয়ে ব্লগার, তামাম ফেসবুকার ও বিশেষ করে দেড় বেটারি সেলিব্রেটি মহলের নাকি কান্না দেখে আমার এই কথা বার বার মনে হয়েছিলো। কিন্তু বিষয়টিকে গুরুত্বহীন মনে করে ঐ ব্যাপারে আগ্রহ দেখাইনি। গুণ্ডে মুভিতে ইতিহাস বিকৃতির ধুয়ো তুলে আমরা যে যেম্নে পারছি চিৎকার দিয়েছি কিন্তু কখনোই এই অপকর্মের মূল শেকড়টা খুঁজতে যাইনি। Continue reading গুণ্ডে নিয়ে গুণ্ডামি

শিল্পাচার্য জয়নুলের নবান্ন ক্রল পেইন্টিং

image_34664পেইন্টিং বিভিন্ন ধরণের হয়। এগুলোর নামকরণের ক্ষেত্রেও তাই ভিন্নতা লক্ষ  করা যায়। ক্রল পেইন্টিং নিয়ে বিস্তৃত আলোচনা করা একজন প্রত্নতত্ত্বের শিক্ষার্থীর জন্য  বেশ কঠিন। তবুও জয়নুলের নাম শোনর পর থেকে অনেক আগ্রহ জন্মেছিলো এই বিষয়টি কি একটু জানবো। আর জানলে তা আগ্রহীদের জন্য শেয়ার করবো। আভিধানিকভাবে ক্রল পেইন্টিংকে সঙ্গায়িত করার ক্ষেত্রে অনেকগুলো অভিধা লক্ষ করা যায়। এখানে প্রকারতাত্ত্বিক ও গাঠনিক দিককে অনেক বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়ে থাকে। বিশেষ করে কি ধরণের উপাদানের উপর স্ক্রল অংকন করা হবে। আর তা আঁকতে কি ধরণের রঞ্জক উপাদান ব্যবহৃত হবে তা অবস্থা বিশেষে অনেক বেশি গুরুত্ববহ হয়ে ওঠে।  আমরা অভিধানের পাতায় দৃষ্টি দিয়ে পাই……… Continue reading শিল্পাচার্য জয়নুলের নবান্ন ক্রল পেইন্টিং

মিশেল ফুঁকো ও উত্তর আধুনিক চিন্তাকাঠামো

urlবিশিষ্ট দার্শনিক ও উত্তর আধুনিক চিন্তাধারার অন্যতম পুরোধা মিশেল ফুঁকো ১৯২৬ খ্রিস্টাব্দের ১৫ অক্টোবর ফ্রান্সের Poitiers নামক স্থানে জন্মগ্রহণ করেন। ফ্রান্সের বিশিষ্ট সার্জন পল ফুকো ছিলেন তাঁর বাবা। বাবা তাঁর নাম রেখেছিলেন পল-মিশেল ফুকো, সেই সাথে ইচ্ছা ছিল জ্ঞানচর্চা শেশে ফুঁকো বাবার মতো চিকিৎসক হবেন। শিক্ষাজীবনের প্রাথমিক সময় বেশ ভালোভাবে কাটতে থাকে তার। তবে তাঁর প্রতিভার বিকাশ লক্ষ করা যায় বিখ্যাত জেসুইট কলেজ সেন্ট-স্টানিসলাসে ভর্তির পর। পড়াশোনায় বিশেষ সাফল্য তাঁকে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরে ফ্রান্সের মানবিক শিক্ষা সংশ্লিষ্ট কর্মক্ষেত্রের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান École Normale Supérieure
– এ প্রবেশের সুযোগ করে দেয়। তবে এখানকার জীবন ফুকোর জন্য ছিল বেশ কষ্টকর। নানা কারণে তিনি প্রচণ্ড অবসাদগ্রস্ততা ও হতাশায় ভুগতে থাকেন। একসময় মানসিক বৈকল্য তাকে মনোচিকিৎসকের স্মরণাপন্ন হতে বাধ্য করে। তিনি এরপর হটাৎ মনোবিজ্ঞানে বিশেষ আগ্রহী হন। Continue reading মিশেল ফুঁকো ও উত্তর আধুনিক চিন্তাকাঠামো

কিছু কিছু কথা আর কিছু পরিচয়

ভার্সিটি থেকে ফেরার সময় প্রতিদিন আমিন বাজারের কাছে জ্যামে পড়তে হয়। আজও অন্যথা হয়নি। বাসের জানালায় মাথা রেখে ঢুলছিলাম। হটাৎ কানে আসলো অলকা ইয়াগনিকের পরিচিত কণ্ঠস্বর। আশে পাশে তাকালাম কে যেন গানটা বাজাচ্ছে… এর আগে শোনা হয়নি। তবুও খারাপ লাগেনি। দুটো লাইন মনে ছিল।

সন্ধার পর নেটে সার্চ দিলাম। গুগল থেকে খুজেও পেলাম। গানটার কথা ছিল অনেকটা এমন

কিছু কিছু কথা আর কিছু পরিচয়……….

মনে মনে চুপি চুপি  দোলা দিয়ে যায়,

কিছু কিছু মুখের হাসি, দিয়ে যায় চাওয়ার বেশি।

ভরে যায় খুশিতে তখন এ হৃদয়।

আমি হটাৎ একটি গানকে কেনো টেনে আনলাম ???? Continue reading কিছু কিছু কথা আর কিছু পরিচয়