সেন্ট নিকোলাস টলেন্টিনোর গির্জা

aaঢাকার অদূরে অবস্থিত গাজীপুরের গুরুত্ব স্যাটেলাইট টাউন হিসেবে সর্বাধিক। বিশেষ করে সময়ের আবর্তে বাংলাদেশের উচ্চশিক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এখানে অবস্থিত। পাশাপাশি উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ এবং আইআইটির অবস্থান একে দিয়েছে শিক্ষানগরীর সম্মান। তবে হাজার বছরের প্রাচীন নগরী ঢাকার উপকণ্ঠে অবস্থিত এ নগরীর প্রত্ন-ঐতিহ্যকে ছোট করে দেখার অবকাশ নেই। অন্তত জয়দেবপুরের ভাওয়াল রাজবাড়ী ও ভাওয়াল রাজ শ্মশানেশ্বরী, শ্রীপুরের ইন্দ্রাকপুর, কাপাসিয়ার টোক বাদশাহী মসজিদ, পূবাইল জমিদার বাড়ি, কালিয়াকৈরের বলিয়াদি জমিদার বাড়ি, একডালা দুর্গ, টঙ্গীর মীর জুমলা সেতুর পাশাপাশি বাংলাদেশের প্রথম খ্রিস্ট ধর্মীয় উপাসনা স্থান সেন্ট নিকোলাস টলেন্টিনো চার্চের উপস্থিতি একে দিয়েছে ভিন্ন মাত্রা। অন্যদিকে বাংলা সাহিত্যের কালজয়ী কথাশিল্পী হুমায়ূন আহমেদের স্বপ্নঘেরা নুহাশ পল্লী, চান্দনার নাগবাড়ী, আনসার একাডেমি, ভাওয়াল জাতীয় উদ্যান আর বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক এ শহরকে করেছে পর্যটন বিকাশের এক অপার সুযোগ। Continue reading সেন্ট নিকোলাস টলেন্টিনোর গির্জা

Advertisements

দ্রোহ ও বিপ্লবের সাংবাদিক

show_image_sppgnewspro-phpঅনেক ক্ষোভ নিয়ে এক বর্ষীয়ানকে বলতে শুনেছিলাম, স্কুলের বাচ্চাদের মতো সাংবাদিকদেরও পোশাক থাকা দরকার। ভদ্রলোক মনে করেন, বাংলাদেশের অমর কথাশিল্পী হুমায়ূন আহমেদ সৃষ্ট চরিত্র হিমুর মতো এ পোশাকের রঙও হবে হলুদ। সেখানে আলখেল্লা, পাঞ্জাবি কিংবা টি-শার্ট কী হবে, তা নিয়ে মাথাব্যথা নেই ওনার। কার সঙ্গে তর্ক হচ্ছে ভাবনা থেকে ঝেড়ে ফেলে তিনি পই পই করে বললেন, ‘মিডিয়া ইজন্ট আ প্লেস ফর দ্য রিফ্লেকশন অব রিয়েলিটি’। ব্যক্তি-গোষ্ঠী, রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও দলীয় স্বার্থ চরিতার্থ করতে গিয়ে এ সময়ে গণমাধ্যমগুলোর যে দুর্দশা, সেখানে এমন হটকারী মন্তব্যের জবাব দেয়াটাও হয়ে যায় বেশ কঠিন। তবে গৌরবময় পেশা হিসেবে সাংবাদিকতার অতীত এখনো সমুজ্জ্বল, উন্নত ও গৌরবে চিরভাস্বর। অনেক আনন্দের সঙ্গে আমরা স্মরণ করতে পারি জাতীয় কবি, তারুণ্য, দ্রোহ, প্রেম ও বিপ্লবের কবি কাজী নজরুল ইসলামও একটা সময় ছিলেন সাংবাদিক। আর স্বভাবসিদ্ধ দ্রোহের তাড়নায় লিখেছিলেন একটি আগুনঝরা সম্পাদকীয়, পত্রিকা বন্ধের পাশাপাশি জামানত পর্যন্ত বাজেয়াপ্ত হয় ‘নবযুগ’ শীর্ষক সংবাদপত্রটির। Continue reading দ্রোহ ও বিপ্লবের সাংবাদিক

জেরুজালেম গ্রন্থের মুখবন্ধ

স্মৃতি ইতিহাস হয়, অপ্রাপ্তিগুলো অতৃপ্ত মনে ভাষার মায়াবী আখর টানে; দেয় কাব্যের জাল বুনে যাওয়ার নিরলস অভিপ্রায়। অনেক ঘটনার ঘনঘটায় কিছু ঘটনা থেকে যায় এ ঘাট থেকে বেশ দূরে। এগুলো হৃদয়ে ধরে আবেগশূন্যতায় ভোগে মানুষ; কল্পবিলাসী প্রতারক মন তবুও বার বার কাঁদায় তাকে। জেরুজালেম এমন এক নগরী যার স্মৃতি রোমন্থনে এ কান্না সবার অতীত নিয়ে, ঐতিহ্যের শেকড় আর জাতিগত পরিচয়ের সংকট সামনে রেখে। হিব্রু থেকে ইহুদি জাতি বিকাশে আপন ভূখণ্ডের দাবি, স্মৃতিময় আল আকসা আর রাসূল সা. এর মিরাজ গমন হৃদয়ের মণিকোঠায় ধরা মুসলিম জনগোষ্ঠী, মহান যীশুর উত্থান ও তিরোধানে ঋদ্ধ পীঠস্থানের আবেগ আপ্লুত খ্রিস্টান কেউ এর বাইরে নয়। ইতিহাস কিংবা ধর্মকথন সবই বলছে প্রত্যেকের শেকড় রোমাঞ্চক এ রহস্যনগরী জেরুজালেমের গহিনে প্রোথিত। তাই ইতিহাস, সাহিত্য, প্রত্নচর্চা কিংবা চলচিত্র নির্মাণের চেষ্টা কোনো ক্ষেত্রেই কর্ম আর মোক্ষ নিজ গতিতে বেগবান হতে পারেনি। এখানে নিজ জাতির শেকড় টেনে
জেরুজালেমের উপর অধিকার প্রতিষ্ঠার দাবিটাই মূখ্য হয়ে গেছে সবার কাছে। মন্টেফিউরি থেকে কাসলার, কোহেলহো থেকে আসিমভ, বেনিয়ামিন থেকে লিংকন, হযরত ওমর রা. থেকে ক্রুসেড বিজয়ী সালাহউদ্দিন আইয়ুব প্রত্যেকের কাছে এ নগরীর নিয়ন্ত্রণ হয়ে গেছে সব কথার শেষ কথা। ইতিহাস লেখক কিংবা প্রত্নর্চাকারীর মৌলিক গুণাবলী, ইতিহাসের প্রকৃতি কিংবা অতীত চর্চার নীতিকথা বেশ ভালো করেই জানেন সবাই। কিন্তু জেরুজালেম এমন এক নগরী যার ইতিহাস রচনার ক্ষেত্রে এ নিয়ম শিকেয় তুলে সবাই চান নিজের ধর্ম, স্ব স্ব চিন্তা আর শেকড় থেকে যুক্ত আদর্শকে টেনে সামনে নিয়ে আসতে। একজন ইতিহাস-প্রত্নতত্ত্বের গবেষক হিসেবে তাই আমার মনে হয়েছে বাজারে-অনলাইনে ‘জেরুজালেমের ইতিহাস’ বলতে যা লভ্য তার একটাও জেরুজালেমের অতীত তুলে ধরেনি বরং লেখক মনের গভীরে লুকিয়ে থাকা কিছু অতৃপ্তির বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়েছে।

Continue reading জেরুজালেম গ্রন্থের মুখবন্ধ

কতটা সময় ইতিহাসে হাজার বছর হয়?

suvo noboborsho_26241শ্রদ্ধেয় গোলাম মুরশিদ স্যার একখান কেতাব লিখেছেন। হাজার বছরের বাঙালি সংস্কৃতি। আশার ছলনে ভুলি শীর্ষক মাইকেল মধুসূদন দত্তের জীবনীগ্রন্থ পাঠ করার পর স্যারকে আমার ক্ষুদ্র চিন্তাজগতের অনেক উপরে স্থান দিয়েছিলাম। তবে এই হাজার বছরের বাঙালি সংস্কৃতি বইটি পড়ার পর চিন্তা হয়েছে Continue reading কতটা সময় ইতিহাসে হাজার বছর হয়?

বিভাগের বোকাঘুড়ি শিক্ষার শূন্য সুতোর নাটাই

floating-schoolপ্রতিষ্ঠার পর থেকে বাংলাদেশে উচ্চশিক্ষা বিস্তারে বিশেষ ভূমিকা রাখছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। বিশেষ করে গুণগত দিক থেকে অনেক প্রশ্ন উঠলেও সংখ্যার দিক থেকে বাংলাদেশ তো বটেই, বিশ্বের অনেক দেশের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলো থেকে এটি এগিয়ে থাকবে নিঃসন্দেহে। পুরো দেশের প্রায় সব কলেজ, যেগুলো উচ্চশিক্ষার সঙ্গে জড়িত, সেগুলোকে একই ছাতার নিচে এনে পরিচালনা চাট্টিখানি কথা নয়। ফলে আকৃতি ও কলেবরের এ বিশালতা একই সঙ্গে একে যেমন করেছে বৈচিত্র্যময়, তেমনি নানা সমস্যায় জর্জরিত দেশের উচ্চশিক্ষা। বিশেষ করে প্রত্যন্ত অঞ্চলগুলোয় অবস্থিত ক্যাম্পাসে যোগ্যতম শিক্ষকদের যুক্ত হতে এক ধরনের অনীহা লক্ষ করা গেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের রীতি মেনে অনেক অনুষদের পাঠদান চলছে। তার জন্য শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের বরাদ্দকৃত কক্ষগুলোর বৈদ্যুতিক পাখা ঘুরছে। সকাল থেকে বিকাল অবধি বেশ জনসমাগমও হচ্ছে ঠিকই। তবে পাঠদান ও পাঠগ্রহণের মানদণ্ডে সেটি কত দূর এগিয়ে যেতে পেরেছে, তা নিয়ে উত্কণ্ঠা দেদার। Continue reading বিভাগের বোকাঘুড়ি শিক্ষার শূন্য সুতোর নাটাই

‘ইলেভেন মিনিটস’

images

যে যাই মনে করুক আমি শুরুতেই বলব। ব্যর্থ প্রেম-ভ্রষ্টাচারে বিষাক্ত এক জীবনের গল্প ‘ইলেভেন মিনিটস’। শুরুটা স্কুল থেকে। নির্জন রাস্তায় মারিয়ার স্কুল যাওয়া; সেই ছেলেটি। নীরবে এক পাশ দিয়ে হেঁটে যেতে একদিন তার এগিয়ে আসা, একটা পেন্সিল চাওয়ার অজুহাতে মারিয়াকে কিছু বলার চেষ্টা; তার পর ব্যর্থতায় তার বদলে যাওয়া। আর দশটা স্বাভাবিক মেয়ের মতো বয়ঃসন্ধিকালের অনুসন্ধিত্সু সময় পার করতে গিয়ে মনোদৈহিক বদলের মুখে মারিয়া কী করেছে, সেখান থেকেই বর্ণনার শুরু। নানা কষাঘাতে বারবার বদলে গেছে তার জীবনের গতিপথ। এর পর হঠাত্ রিও ডি জেনিরো গমন; সেখানে একই সাথে নিরাপত্তারক্ষী-দোভাষী-সুইস এজেন্টের দালাল ম্যালিসনের সাথে পরিচয়। একজন মডেল হওয়ার তীব্র বাসনা আর ঝলমলে পর্দার হাতছানি তাকে সাহস দেয়। বাড়িতে ফিরে মা-বাবার অনুমতি নিয়ে সে পাড়ি দেয় সুইজারল্যান্ডের জেনেভা। এমন একটা দেশ যেখানে তার পরিচিত কেউ নেই, নেই স্বজন এমনকি তার ভাষা বোঝে, এমন মানুষ মেলা ভার। Continue reading ‘ইলেভেন মিনিটস’

সেদিন কোনও একদিন…

wallpaper-love-love-31307651-1280-960তারা কথা রাখেনা। কেউ কেউ হয়ত রাখে। নিজের সম্পূর্ণ বিশ্বাস তাদের কারো হাতে তুলে দেয়ার আবেগটা জন্মায় নি আমার মাঝে। ইচ্ছে করে তাই আমার এক একটি নির্ঘুম রাতের দায় সব নষ্ট ভালোবাসার শিকলমুক্ত রেখেছি। বিমুগ্ধতার পরশ বুলিয়ে যাওয়া নিশ্চুপ অন্ধকার কিংবা কৃষ্ণপক্ষের ঘোলাটে চাঁদের পূর্ণ অধিকারটাও তেমনি Continue reading সেদিন কোনও একদিন…

তালগাছ বৃত্তান্ত

ae6a3c6a4a205210846806da7c7192bfইহুদি ধর্মবিশ্বাসে অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় তালগাছ। একটু খেয়াল করলে দেখা যাবে ইস্টার উৎসবের আগে যে রবিবার আসে তাকে বলা হয় পাম সানডে যেটা কারো একার নয়। তবে এ সময়ে জেরুজালেমবাসীর উদ্দেশ্যে একটি আশ্চর্যজনক তাল গাছ স্রষ্টার থেকে উপঢৌকন হিসেবে এসেছিলো বলে মনে করা হয়। অর্থডক্স ইহুদি ও জায়নবাদীদের অনেকে মনে করে ঐ তালগাছ অল্টার অব ডেভিডে তথা দাউদের বেদির কাছাকাছি কোনো এক স্থানে হবে। জায়নবাদী দর্শনে তালগাছ সমৃদ্ধি ও শান্তির প্রতীক, এদিকে জনপ্রিয় বাংলা প্রবাদ, বিচার মানি কিন্তু তালগাছটা আমার। আসলে পবিত্র কুরআন, বাইবেল এবং ওল্ড টেস্টামেন্ট সবখানেই তালগাছের উল্লেখ থাকাতে তালগাছের ধর্মীয় গুরুত্বটা বহুলাংশে বেড়ে গেছে।
তাইতো বাঙালি দর্শনে এতো গাছ থাকতে আর কিছু না Continue reading তালগাছ বৃত্তান্ত

দেশ কিংবা সাহিত্যের মালিক

Mustaches of the American Westভোদকা এবং চিংকু বাম কিংবা ইসলামিস্টদের বিভিন্ন গ্রুপে ভাগ হওয়া আর যাই হোক পুঁজিপতিদের উপকৃত করেছে। নিওলিবারেল যুগের সুবিধাভোগী লুম্পেন বুর্জোয়া শ্রেণির ধান্দাবাজির রাজনীতিও এতে অনেক আয়েশের মধ্যে দিনযাপন করছে বৈকি। ইসলামিস্টরা যদি বাস্তব অর্থে এক হইতো তাইলে সব শক্তি এক হলেও তাদের একটা লেঞ্জার বাড়ি সহ্য করার ক্ষমতা অবশিষ্টদের হইতো না। আর বিশ্বের সব বাম যদি দলমত নির্বিশেষে এক হইতো তাইলে বিশ্বে পুঁজি বলতে আর কিছু অবশিষ্ট রইতো না। কিন্তু সেটা তো আর হচ্ছে না।
বাস্তবে দেখা গেছে মানুষের পশ্চাদদেশ যেমন দুইভাগে বিভক্ত Continue reading দেশ কিংবা সাহিত্যের মালিক

অলিম্পিকে চৈনিক সাফল্যের পেছনে রয়েছে যে পৈশাচিকতা

article-0-145294AB000005DC-827_634x800সম্প্রতি ফেসবুকে একটি ছবি অসম্ভব শেয়ার করা হচ্ছে। লাইকখেকো পেইজ আর  বোকা পাব্লিক নানা নাম-ধামে ঐ ছবি একে অন্যের মধ্যে চালাচালি করে ওয়াল থেকে ওয়াল গরম করে চলছে। আসলে ক্রীড়া প্রশিক্ষণের নামে শিশুদের উপর পৈশাচিক নির্যাতন চালানোর খণ্ডচিত্র এটি। এখানে দুটি নোংরা ফেটিশ বিষয় কাজ করে স্যাডিস্ট চৈনিকদের মধ্যে। Continue reading অলিম্পিকে চৈনিক সাফল্যের পেছনে রয়েছে যে পৈশাচিকতা

ইতিহাস, ঐতিহ্য, প্রত্নতত্ত্ব আর রাজনীতি