Category Archives: Archaeology

বাংলার ঐতিহ্যবাহী মৃৎশিল্প

28socials3bigমানব সংস্কৃতির ঐতিহাসিক আবর্তন যেসব প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শনের ওপর নির্ভর করে বিশ্লেষণ করতে হয় তার মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ মৃৎপাত্র। একজন প্রত্নতাত্ত্বিক গবেষক হিসেবে এই মৃৎপাত্রের ভাঙ্গাচোরা টুকরাগুলোকে অনেক বিরক্তির, যন্ত্রণাদায়ক ও কষ্টকর গবেষণা উপকরণ হিসেবেই মনে হয়েছে। কোনো প্রত্নস্থান থেকে নানা উপায়ে যে প্রত্ন উপকরণ সবচেয়ে বেশি চোখে পড়ে তা হচ্ছে পর্ট সার্ড তথা এই খোলামকুচিই। প্রত্নতত্ত্ব বিভাগে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী হিসেবে যখন বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ প্রত্নস্থান উয়ারী-বটেশ্বরের খনন কাজে অংশ নিয়েছিলাম তখন থেকেই পরিচয় নানা ধরনের মৃৎপাত্রের টুকরা আর গাঠনিক বৈশিষ্ট্যের সাথে।
উয়ারী-বটেশ্বর থেকে প্রাপ্ত মৃৎপাত্রগুলোর মধ্যে সবার আগে বলা যেতে পারে কালো-ও-লাল মৃৎপাত্র, উত্তরাঞ্চলীয় কালো চকচকে মৃৎপাত্র কিংবা কালো প্রলেপযুক্ত মৃৎপাত্রের কথা। প্রাথমিকভাবে ধরে নেয়া যায় এই বিশেষ মৃৎপাত্রের মধ্যে কালো-ও-লাল মৃৎপাত্র প্রাপ্তি বাংলার ইতিহাসকে নতুন করে লিখতে বাধ্য করেছে। বিশ্বের কোনো স্থানে একই সাথে Continue reading বাংলার ঐতিহ্যবাহী মৃৎশিল্প

Advertisements

সেন্ট নিকোলাস টলেন্টিনোর গির্জা

aaঢাকার অদূরে অবস্থিত গাজীপুরের গুরুত্ব স্যাটেলাইট টাউন হিসেবে সর্বাধিক। বিশেষ করে সময়ের আবর্তে বাংলাদেশের উচ্চশিক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এখানে অবস্থিত। পাশাপাশি উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ এবং আইআইটির অবস্থান একে দিয়েছে শিক্ষানগরীর সম্মান। তবে হাজার বছরের প্রাচীন নগরী ঢাকার উপকণ্ঠে অবস্থিত এ নগরীর প্রত্ন-ঐতিহ্যকে ছোট করে দেখার অবকাশ নেই। অন্তত জয়দেবপুরের ভাওয়াল রাজবাড়ী ও ভাওয়াল রাজ শ্মশানেশ্বরী, শ্রীপুরের ইন্দ্রাকপুর, কাপাসিয়ার টোক বাদশাহী মসজিদ, পূবাইল জমিদার বাড়ি, কালিয়াকৈরের বলিয়াদি জমিদার বাড়ি, একডালা দুর্গ, টঙ্গীর মীর জুমলা সেতুর পাশাপাশি বাংলাদেশের প্রথম খ্রিস্ট ধর্মীয় উপাসনা স্থান সেন্ট নিকোলাস টলেন্টিনো চার্চের উপস্থিতি একে দিয়েছে ভিন্ন মাত্রা। অন্যদিকে বাংলা সাহিত্যের কালজয়ী কথাশিল্পী হুমায়ূন আহমেদের স্বপ্নঘেরা নুহাশ পল্লী, চান্দনার নাগবাড়ী, আনসার একাডেমি, ভাওয়াল জাতীয় উদ্যান আর বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক এ শহরকে করেছে পর্যটন বিকাশের এক অপার সুযোগ। Continue reading সেন্ট নিকোলাস টলেন্টিনোর গির্জা

বখত বিনতের মসজিদ

সাম্প্রতিক গবেষণায় হাজার বছরের নগরী ঢাকার ঐতিহ্য নিয়ে অনেক কিছু জানার সুযোগ হয়েছে। ঢাকা শহরে রয়েছে নানা যুগ পর্বের প্রত্ন স্থাপনা। একসময় ঢাকাকে বলা হতো ‘মসজিদের শহর’। বলা বাহুল্য, সাধারণ বিচারে এ শহরে মসজিদের আধিক্যের কারণেই অমন পরিচিতি যুক্ত হয়েছে। প্রকৃত পক্ষে মসজিদ স্থাপত্য সমকালীন সময়ে মুসলিম সমাজের অস্তিত্বের কথাই প্রচার করে। সমাজ ইতিহাস নির্মাণে তাই মসজিদ বরাবর আকর সূত্র হিসেবে গৃহীত। আধুনিক ইতিহাসবিদরা অপ্রতুল তথ্যসূত্রের কারণে একসময় ধারণা করেছিলেন, মোগল আধিপত্য প্রতিষ্ঠার আগে অর্থাৎ সতেরো শতকের আগে ঢাকায় মুসলিম বসতি স্থাপন হয়নি। মোগলরাই ঢাকা শহরের পত্তন করেন এবং মুসলিম সমাজের বিকাশ ঘটান। প্রত্নসূত্র এখন এ ধারণার পরিবর্তন করছে। পনেরো শতকের মাঝ পর্বেই ঢাকায় নির্মিত মসজিদ শনাক্ত করা গেছে। আর সময়ের বিচারে এ পর্বের আদিতম মসজিদের মূল অংশটি বহু সংস্কারের পথ ধরে এখনো টিকে আছে। এটি ঢাকার নারিন্দায় অবস্থিত বখত বিনতের মসজিদ। যদিও অনেক লেখক-গবেষকের অসাবধানী শব্দ ব্যবহারে এটি সাধারণ্যে ‘বিনত বিবির মসজিদ’ নামে অধিক পরিচিত। Continue reading বখত বিনতের মসজিদ

৬০০০ বছর পূর্বের চুম্বন আর তেপ্পে হানসালুর যুগল সমাধি

6268_514231081966321_1854063880_n
হানসালুর সেই কঙ্কাল

অতীত মানুষের নির্মিত ব্যবহৃত বা প্রভাবিত বস্তুগত উপাদানের বিশ্লেষণ করে তাদের জীবনযাত্রার ইতিবৃত্ত তুলে ধরে প্রত্নতত্ত্ব। এক্ষেত্রে অনেক ক্ষেত্রে কৌতুহলোদ্দীপক ঘটনা যেমন ঘটে। তেমনি প্রত্নতাত্ত্বিক স্থাপনা নিয়ে কিংবদন্তীর সংখ্যাও কম নয়। ঔপনিবেশিক সময় থেকেই এই প্রবণতা আরো বেড়ে গেছে। পিল্ডডাউন মানবের কেলেঙ্কারি থেকে শুরু করে বিভিন্ন প্রত্নতাত্ত্বিক ভ্রষ্টাচার বিশ্বে ছেয়ে গেছে। মানুষ ইতিহাসকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করতে গিয়ে এর যাচ্ছেতাই ব্যবহারের পরিমাণ বাড়িয়েই চলেছে। অন্যদিকে এক শ্রেণির সংবাদলোভী শ্রেণি এগুলোকে ব্যবহার করছে তাদের ওয়েব সাইটের ট্রাফিক বাড়ানোর কাজে। এমনি একটি ঘটনা ঘটেছে ইরাণের হানসালু প্রত্নস্থানে প্রাপ্ত একটি যুগল সমাধিকে নিয়ে। ফেসবুকের ব্যবহার করে প্রত্নতাত্ত্বিক ক্ষেত্রে ঘটে যাওয়া সাম্প্রতিক ঘটনাগুলোকে সবসময় নিজের আয়ত্বে রাখার চেষ্টা করি। বিশ্বের নানা দেশের নামকরা প্রত্নতত্ত্ব ভিত্তিক পেইজগুলো লাইক দিয়ে রাখি, সেই সাথে অনেকগুলো প্রত্নতত্ত্ব নির্ভর বিশ্বজনীন পেইজের অ্যাডমিনও হওয়ার সৌভাগ্য হয়েছে। সেদিন একটি আাজারবাইজানের পেইজে লেখা দেখলাম “6000 years old kiss found in Hasanlu, Iran”। সত্যি আঁতকে ওঠারই কথা। আমাদের দেশে যেখানে মাত্র আড়াই হাজার বছরের পূর্বের রাস্তা আবিষ্কার প্রত্নতাত্ত্বিকদের সহ্য হয়না। তারা এর বিরুদ্ধে বাদ-প্রতিবাদ শুরু করতে সময় নেননা। ইরানীদের হলো কি? তারা কি সুরেশ খাঁটি সরিষার তেল নাকে দিয়ে ঘুমুচ্ছে নাকি? Continue reading ৬০০০ বছর পূর্বের চুম্বন আর তেপ্পে হানসালুর যুগল সমাধি

বায়তুল্লাহ শরীফ বা কাবাঘর সংশ্লিষ্ট ঐতিহ্য নিদর্শন ধ্বংসের নেপথ্যে

কাবা প্রাঙ্গনের সাম্প্রাতিক সম্প্রসারণ

সাম্প্রতিক সময়ে দীর্ঘ অধ্যয়ন করছি বিভিন্ন জিওনিষ্ট কাল্ট নিযে। ফ্রিম্যাসনারি চক্রের উপর একটি প্রবন্ধ লিখতে গিয়ে অনেকটা আগ্রহী হয়েছিলাম তাদের সম্পর্কে। প্রথমে মনে হলো কি এক আজগুবি গুপ্তগোষ্ঠী, কি তাদের দৌড়ঝাঁপ, কতোই বিস্তৃত তাদের কর্মযজ্ঞ। পরিশেষে বুঝলাম হিরাম আবিফ কৃত্যের সেকেলে কুসংস্কার আঁকড়ে এরা এখনো মানুষের ক্ষতি করতে পারলেই খুশি হয়। বিধবার সন্তান হিরাম আবিফের কাছে সলোমন টেম্পলের কি নকশা ছিলো সেটা জানিনা কিন্তু তাদের অন্তরে বদ্ধমূল ধারণ যেভাবেই হোক ভাংতে হবে মসজিদুল আকসা। সেখানেই তাদের ফিলোসফারস স্টোন আছে, সেখানকার কুব্বাতুস সাখরাকে উড়িতে দিলেই দেখা মিলবে অল্টার অব ডেভিডের। যাইহোক বিষয় সেটা নয়। এই ফ্রিম্যাসনদের সম্পর্কে পড়তে গিয়েই জিওনিস্ট কাল্টে বেনজিন চিহ্নের গুরুত্ব সম্পর্কে জানতে পেরেছিলাম। বাংলায় একে আমরা ষড়ভুজ বা ইংরেজিতে হেক্সাগন বলতে পারি। অবাক বিস্ময়ে লক্ষ করা যাচ্ছে Continue reading বায়তুল্লাহ শরীফ বা কাবাঘর সংশ্লিষ্ট ঐতিহ্য নিদর্শন ধ্বংসের নেপথ্যে

মধ্যযুগের ঢাকায় বিদেশিরা

image_1324_368797ঢাকা সুপরিচিত শহর হলেও পুরনো ও ঐতিহ্যবাহী মহানগর হিসেবেও খ্যাতিমান। ১৬১০ খ্রিস্টাব্দে মোগল সম্রাট জাহাঙ্গীরের নামানুসারে ঢাকার নামকরণ করা হয়েছিল, তবে মোগল রাজধানী ঢাকায় প্রথম সুবাদার ইসলাম খান (১৬১০-১৬১৩ খ্রি.) এখানে আসার আগে থেকেই এই শহরের অস্তিত্ব থাকার কথা মির্জা নাথানের ‘বাহারিস্তান-ই-গায়বি’তে সুস্পষ্টভাবে বর্ণিত আছে। নতুন এই রাজধানীতে বিদেশিরা বিপুল সংখ্যায় যে আসবে, তা স্বাভাবিক। কিন্তু রাজধানী হওয়ার আগেও জনপদ হিসেবে ঢাকার অস্তিত্ব থাকায় বিদেশিদের আগমন ঘটা অস্বাভাবিক ছিল না। মানসিংহের আমলের দুর্গ ইসলাম খানের আগে থেকেই ছিল এবং সম্রাট আকবরের আমলে মোগল পক্ষের এই সমরকুশলী নিজেও বাংলা অঞ্চলের মানুষ ছিলেন না, কাজেই সামরিক গুরুত্বের কারণে রাজধানী স্থাপনের আগেও কিছু না কিছু বিদেশি ঢাকায় এসেছিলেন। ঢাকায় বিদেশিদের আগমনের সুস্পষ্ট লিখিত ঐতিহাসিক বৃত্তান্ত মোগল যুগ থেকেই পাওয়া যায়। Continue reading মধ্যযুগের ঢাকায় বিদেশিরা

হারাতে হলো প্রত্নতাত্ত্বিক মাইক এস্টনকেও

urlচলে গেলেন বিশিষ্ট প্রত্নতাত্ত্বিক ও টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব মাইক এস্টন। কিছুদিন আগে যাঁর সাথে প্রায় ২০ মিনিটের মতো চ্যাট হয়েছিলো সেই ব্যক্তিটি এমন অসময়ে চলে যাবেন ভাবতেই কেমন অবাক লাগছে। এই রকম বিশ্বনন্দিত একজন প্রত্নতাত্ত্বিক হওয়া সত্ত্বেও তাঁর মধ্যে আমাদের বঙ্গদেশীয় অঘাচণ্ডি মাতবারদের মতো নাক উঁচু ভাব ছিলোনা। টুইটারে তার অনেক পোস্টে বাংলাদেশের সামান্য প্রত্নতত্ত্ব শিক্ষার্থীকে ট্যাগ করতে তার বাধেনি। তাঁর শিক্ষার্থী-সহকর্মী যাদের সাথে অনলাইনে আমার যোগাযোগ হয় প্রায় সবাই শোকে স্তব্ধ। অন্তত এই দীর্ঘকেশী প্রত্নতাত্ত্বিক ব্যক্তিত্বের সম্পর্কে তেমন কোনো হতাশাজনক বক্তব্য শুনিনাই। অন্যদিকে তিনি প্রত্নতত্ত্ব বিষয়টিকে তাঁর মূল্যবান গবেষণা দিয়ে সমৃদ্ধ করে গেছেন। বিশেষত সকল শ্রেণিপেশার মানুষের জন্য প্রত্নতত্ত্ব ছিলো তার কর্মকাণ্ডের মূল প্রতিপাদ্য। এক্ষেত্রে তাঁর কর্মকাণ্ড তাকে ছাড়িয়েছে অনেক আগেই। অক্লান্ত পরিশ্রম করে তিনি নিজেকে নিয়ে গেছেন অন্যরকম এক উচ্চতায়। Continue reading হারাতে হলো প্রত্নতাত্ত্বিক মাইক এস্টনকেও

A Visual Glossary of Greek Pottery

Corinthian Alabastron Vase
Corinthian Alabastron Vase

Alabastron (pl. alabastra) – a small jar for storing perfumes, named after the material (alabaster) the first examples were made from. They were often carried by a string looped around the neck of the vessel.

Greek Foot Race
Greek Foot Race

 

Amphora (pl. amphorae) – one of the most common forms in Greek pottery, various shapes, always with two vertical neck-handles and used for storing and transporting oil, wine and foodstuffs such as olives. Often with a lid but these have rarely survived. Continue reading A Visual Glossary of Greek Pottery

Discoverer of the Tomb of Tutankhamun: Howard Carter

It may simply have been the luck of the draw, but no one has probably furthered the interests of Egyptology, and indeed the world’s archaeological focus on Egypt more than Howard Carter. His discovery of the tomb of Tutankhamun has inspired almost a century of Hollywood movies, books and media attention for this greatest of all living museums we call Egypt. While Howard Carter’s find of the mostly intact tomb of a pharaoh may have been lucky, it was the result of a dedicated career in Egyptology and the culmination of consistent exploration. Continue reading Discoverer of the Tomb of Tutankhamun: Howard Carter

মিশেল ফুঁকো ও উত্তর আধুনিক চিন্তাকাঠামো

urlবিশিষ্ট দার্শনিক ও উত্তর আধুনিক চিন্তাধারার অন্যতম পুরোধা মিশেল ফুঁকো ১৯২৬ খ্রিস্টাব্দের ১৫ অক্টোবর ফ্রান্সের Poitiers নামক স্থানে জন্মগ্রহণ করেন। ফ্রান্সের বিশিষ্ট সার্জন পল ফুকো ছিলেন তাঁর বাবা। বাবা তাঁর নাম রেখেছিলেন পল-মিশেল ফুকো, সেই সাথে ইচ্ছা ছিল জ্ঞানচর্চা শেশে ফুঁকো বাবার মতো চিকিৎসক হবেন। শিক্ষাজীবনের প্রাথমিক সময় বেশ ভালোভাবে কাটতে থাকে তার। তবে তাঁর প্রতিভার বিকাশ লক্ষ করা যায় বিখ্যাত জেসুইট কলেজ সেন্ট-স্টানিসলাসে ভর্তির পর। পড়াশোনায় বিশেষ সাফল্য তাঁকে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরে ফ্রান্সের মানবিক শিক্ষা সংশ্লিষ্ট কর্মক্ষেত্রের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান École Normale Supérieure
– এ প্রবেশের সুযোগ করে দেয়। তবে এখানকার জীবন ফুকোর জন্য ছিল বেশ কষ্টকর। নানা কারণে তিনি প্রচণ্ড অবসাদগ্রস্ততা ও হতাশায় ভুগতে থাকেন। একসময় মানসিক বৈকল্য তাকে মনোচিকিৎসকের স্মরণাপন্ন হতে বাধ্য করে। তিনি এরপর হটাৎ মনোবিজ্ঞানে বিশেষ আগ্রহী হন। Continue reading মিশেল ফুঁকো ও উত্তর আধুনিক চিন্তাকাঠামো